ঢাকা, শুক্রবার, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ২৩ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ১৪ মিনিট আগে

ওসি পরিচয়ে মোবাইল ফোনে চাঁদাবাজি

  রাণীশংকৈল প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০৩ আগস্ট ২০২২, ১২:৫৭

ওসি পরিচয়ে মোবাইল ফোনে চাঁদাবাজি
ছবি: সংগৃহীত
রাণীশংকৈল প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসএম জাহিদ ইকবালের পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন মোবাইল নম্বরে ফোন দিয়ে চাঁদা দাবি করে টাকা আদায় করা হচ্ছে।

রাণীশংকৈলে গত ২৭ জুলাই ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় ভোটকেন্দ্রের প্রিসাইডিং অফিসার ও দুই সহকারী পুলিশ উপ-পরিদর্শক (এএসআই) বাদী হয়ে ৮শ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়।

আর এ সুযোগে ওসি পরিচয় দিয়ে অজ্ঞাতনামার মামলার বিভিন্ন আসামি, ইউপি সদস্যসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের কাছে চাঁদা দাবি করেছে প্রতারক চক্র।

বুধবার সকালে এ তথ্য জানান ওসি এসএম জাহিদ ইকবাল। তিনি বলেন, ওসির পরিচয়ে একটি প্রতারক চক্র বিভিন্নভাবে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করছে, আমরা নম্বর গুলো যাচাই করার চেষ্টা করছি।

তিনি আরও জানান, ওসি পরিচয়ে মুঠোফোন নম্বর থেকে একটি প্রতারক চক্র কিছুদিন ধরে উপজেলার বাচোর ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার, ব্যবসায়ী ও স্থানীয় ব্যক্তিদের কাছে চাঁদা দাবি করে।

বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে সকল ইউপি চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ফোন করে সতর্ক করে দেন তিনি। এই ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হবে বলেও জানান তিনি।

স্থানীয়রা বলছেন, ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় পৃথক ৩টি অজ্ঞাতনামা মামলার ভয়ে গত কয়েকদিন ধরে চলছে পুলিশের নামে চাঁদাবাজি। এলাকাছাড়া নিরীহ মানুষের উপর যেন এটি মরার উপর খড়ার ঘাঁ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গত ২৭ জুলাই বাচোর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ভাংবাড়ী ভিএফ নিন্ম মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে পুলিশের গুলিতে শিশু নিহতের ঘটনায় প্রিসাইডিং কর্মকর্তা খতিবুর রহমানসহ পুলিশের পৃথক ৩টি মামলা করায় গ্রেপ্তার আতঙ্কে রয়েছে এলাকাবাসি। এ সুযোগে ওসি পরিচয়ে চলছে নিরব চাঁদাবাজি। যদিও পুলিশ প্রশাসন বলছে তদন্ত ছাড়া নিরীহ কাউকেই হয়রানি করা হবেনা।

এ প্রসঙ্গে রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম জাহিদ ইকবাল জানান, ইউপি সদস্য বাবুল হোসেনের একটি লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রতারক চক্রকে শনাক্ত করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত