ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ৫৩ মিনিট আগে

ঝকঝকে আকাশ, নগরের অলিগলিতে হাঁটুপানি

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১১ আগস্ট ২০২২, ১৮:২৬

ঝকঝকে আকাশ, নগরের অলিগলিতে হাঁটুপানি
ছবি: প্রতিনিধি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

ঝকঝকে আকাশ। প্রখর রোদ। কিন্তু রাজপথে, অলিগলিতে হাঁটুপানি। ঝড়-বৃষ্টি না হলেও কর্ণফুলী নদীর জোয়ারের পানিতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগে পড়েছেন নগরের আগ্রাবাদ সিডিএ আবাসিক এলাকা ও চাক্তাই-খাতুনগঞ্জের মানুষজন। শুধু যে বর্ষা মৌসুমে চোখের জল ফেলতে হয় তা কিন্তু না। প্রায় সারা বছরই অমাবস্যা-পূর্ণিমায় বৃষ্টি ছাড়াই জোয়ারের পানিতে ভাসতে হয় তাদের।

বৃহস্পতিবার ভরদুপুরে ভারি বৃষ্টিপাত ছাড়াই জোয়ারের পানিতে দুই ফুট নিচে তলিয়ে গেছে নগরের চাক্তাই-খাতুনগঞ্জ, আগ্রাবাদ সিডিএ এলাকাসহ নিন্মাঞ্চলগুলো। স্বাভাবিকের চেয়ে জোয়ারের পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় নগরের এ সকল নিচু এলাকার বাসা-বাড়িসহ বেশকিছু দোকান ও গুদামেও পানি প্রবেশ করেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পূর্ণিমার প্রভাবে জোয়ারের পানিতে নগরের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। সিডিএ অ্যাভেনিউর কয়েকটি স্পট ছাড়াও নগরের আগ্রাবাদ, সিডিএ আবাসিক, শান্তিবাগ, হালিশহর আবাসিক এলাকা, চান্দগাঁও, বাকলিয়া, খাতুনগঞ্জসহ বেশকিছু নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে জোয়ারের পানিতে।

চাক্তাই আড়তদার ও ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আহসান খালেদ পারভেজ বলেন, দুপুরের সময় হঠাৎ করেই খাতুনগঞ্জের নিচু এলাকায় জোয়ারের পানি ঢুকতে থাকে। দুই ঘণ্টার বেশি সময় পানি ছিল। এতে অনেক দোকানেই পানি ঢুকে মালামাল নষ্ট হয়েছে। স্লুইসগেটগুলোর কাজ দ্রুত শেষ করা গেলে ব্যবসায়ীরা এ দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পেতো।

সিডিএর প্রধান প্রকৌশলী কাজী হাসান বিন শামস বলেন, ২০২১ সালে আগ্রাবাদ এলাকার সড়ক ৩ ফুট উঁচু করা হয়। তারপরও এ বছর এখানকার সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। জোয়ারজনিত জলাবদ্ধতা নিরসনে কর্ণফুলী নদীর সঙ্গে খালগুলোর মুখে স্লুইসগেট নির্মাণ কাজ চলছে। এগুলো চালু হলে দুর্ভোগ থাকবে না।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা যায়, সাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও পূর্ণিমার কারণে জোয়ারের পানির উচ্চতা বেড়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে। কখনও জোয়ারের পানির সর্বোচ্চ উচ্চতা দাঁড়ায় ৫ দশমিক ৪০ মিটারের বেশি।

পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়া পূর্বাভাস কর্মকর্তা বিশ্বজিত চৌধুরী বলেন, সাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ ও বায়ুচাপ পার্থ্যেকের আধিক্যের প্রভাবে উপকূলীয় এলাকা ও নিম্নাঞ্চলে স্বাভাবিক জোয়ারের চেয়ে ২ থেকে ৪ ফুট উচ্চতার পানি উঠতে পারে। আর জোয়ারের পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত