ঢাকা, বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে

মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বেআইনি কাজে জড়িত র‌্যাব সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৮:৩৭  
আপডেট :
 ১৬ আগস্ট ২০২২, ১৮:৫৫

বেআইনি কাজে জড়িত র‌্যাব সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়
নিজস্ব প্রতিবেদক

বেআইনি কাজে জড়িত র‌্যাব সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাসকে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান কামাল।

রাষ্ট্রদূত পিটার হাস মঙ্গলবার সচিবালয়ে দেখা করতে গেলে তাকে একথা জানান মন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী র‌্যাবের উপর নিষেধাজ্ঞা তোলার সুপারিশ জানিয়ে রাষ্ট্রদূতকে বলেন, এই বাহিনীর কেউ বেআইনি কাজ করলে তাকে আইনের আওতায় আনে সরকার।

আসাদুজ্জামান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, র‌্যাবের বিষয়ে আমি এও বলেছি, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমাদের ল এনফোর্সমেন্ট এজেন্সি সেলফ ডিফেন্সে গুলি করে থাকে। সেটা যথাযথ হয়েছে কি না, সেটা নিশ্চিত করার জন্য একজন ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করা হয় ঘটনার পরপরই। তিনি (ম্যাজিস্টেট) যদি মনে করেন এটা যথাযথ হয়নি, তাহলে সেই সদস্যকে ‘ট্রায়াল ফেইস’ করতে হয়।

তবে বেআইনি কাজে জড়িত র‌্যাব সদস্যদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয় কি না, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন পিটার হাস।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি (পিটার) বলেছেন, এটা তো তোমরা পাবলিকলি এনাউন্স করো না। আমরা বলেছি, যেগুলো করার সেগুলো আমরা করছি।

আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবস উপলক্ষে গত ১০ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্র মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে র‌্যাবের সাবেক মহাপরিচালক ও বর্তমান পুলিশ প্রধান বেনজীর আহমদসহ বাহিনীর সাত কর্মকর্তার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

ওই ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের যে কোনো কর্মকর্তার সঙ্গে সরকারের কারও বৈঠকে সেই নিষেধাজ্ঞা তোলার বিষয়টি স্থান পেলো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, র‌্যাবের বিষয়ে তারা (যুক্তরাষ্ট্র) বলেছে, যেভাবে র‌্যাবের কাজ করা উচিৎ ছিল, সেভাবে কাজ করেনি বলেই র‌্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

আমরা বলেছি, র‌্যাবের কোনো সদস্য বেআইনি কোনো কাজ করলে তাদের আইনের আওতায় নিয়ে আসা হয়। এক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের মামলায় র‌্যাব সদস্যদের বিচারের কথা রাষ্ট্রদূতের কাছে তুলে ধরেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা থাকায় পুলিশ মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠেয় জাতিসংঘ পুলিশপ্রধান সম্মেলনে যোগ দিতে পারবেন কি না, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। ওই সম্মেলনের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নেতৃত্বাধীন প্রতিনিধি দলে রয়েছেন বেনজীর।

এ প্রসঙ্গে আসাদুজ্জামান কামাল বলেন, আইজিপি আমেরিকা যেতে পারবেন কি না, জানতে চাইলে তিনি (পিটার হাস) যেটা বলেছেন, ইউএনের সাথে তাদের একটি সমঝোতা রয়েছে। সে অনুযায়ী এটা প্রক্রিয়ায় রয়েছে। সেটা শেষ হয়ে এলে এটা নিশ্চিত করতে পারবেন।

বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক এগিয়ে নিতে যুক্তরাষ্ট্র কোন কোন খাতে সহযোগিতা বাড়াতে পারে, তা মন্ত্রীর কাছে জানতে চেয়েছেন পিটার হাস। তারা মানবপাচার বন্ধে কাজ করতে ইচ্ছুক। আমাদের নিরাপত্তার জন্য যদি কিছু প্রয়োজন হয়, সেখানে সহযোগিতা করতে পারে।

দুই-তিনটি খাতে সহযোগিতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র লিখিত প্রস্তাব দিয়েছিল জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সেখানে আমরা ইতিমধ্যে খুব শিগগির সমঝোতা স্মারক সই করবো, সেটা তাকে (মার্কিন দূত) জানিয়ে দিয়েছি। এখন এগুলো শেষ পর্যায়ে আছে।

বাংলাদেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে সব ধরনের সহযোগিতা দিতে আগ্রহের কথা রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন মন্ত্রীকে।

দেশের বর্তমান আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে পিটার হাস সন্তোষ প্রকাশ করেছেন জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ইলেকশন পর্যন্ত এটা (আইনশৃঙ্খলা) ঠিক থাকবে কি না, জানতে চেয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

আমি বলেছি, প্রধানমন্ত্রীর কমিটমেন্ট- তিনি একটি পিস ফুল অ্যাটমোস্ফিয়ার কন্টিনিউ করবেন আপ টু ইলেকশন। লট অব ডেমোনস্ট্রেশন হচ্ছে, লট অব মিটিং হচ্ছে, আমাদের এখানে কোনো ইয়ে নাই।

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়েও কথা হয়েছে জানিয়ে আসাদুজ্জামান কামাল বলেন, এ বিষয়ে সহযোগিতা এই সমস্যা সমাধানে তারা তাদের কণ্ঠস্বর আরও শক্তিশালী করবে বলে আমরা মনে করি। তারা এ বিষয়ে তাদের যে সহযোগিতা এখন আছে সেটা অব্যাহত থাকবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত