ঢাকা, শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯ আপডেট : ৩ মিনিট আগে

স্কুলছাত্রীর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার, আটক ৩

  নোয়াখালী প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৪:২১

স্কুলছাত্রীর বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার, আটক ৩
নিহত অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তাসনিয়া হোসেন অদিতা
নোয়াখালী প্রতিনিধি

নোয়াখালী সদর উপজেলায় বিবস্ত্র অবস্থায় তাসনিয়া হোসেন অদিতা (১৪) নামের এক স্কুলছাত্রীর গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অদিতা নোয়াখালী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। এ ঘটনায় জড়িত থাকা সন্দেহে ৩ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় নোয়াখালী পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের লক্ষ্মী নারায়ণপুর গ্রামের আবুল খায়ের পেশকারের বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত তাসনিয়া হোসেন অদিতা আবুল খায়ের পেশকারের নাতনি ও মৃত রিয়াজ হোসেনের মেয়ে।

অদিতার মা জয়নাল আবেদীন মেমোরিয়াল একাডেমির শিক্ষিকা রাজিয়া সুলতানা রুবি বলেন, ‌‌বাসায় অদিতা একাই ছিল। সন্ধ্যার পর প্রাইভেট থেকে বাসায় এসে বাইরে থেকে তালা দেখতে পান। জানালার কাচ ভেঙে খাটের ওপর মেয়েকে অর্ধনগ্ন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। পরে দরজা ভেঙে অদিতার গলাকাটা ও হাতের রগকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, এলাকার কিছু বখাটে দীর্ঘদিন ধরে অদিতাকে বিভিন্নভাবে উত্ত্যক্ত করত। এ বিষয়ে একাধিকবার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানানো হয়। গত কয়েকদিন ধরে অদিতাকে ধর্ষণ করবে বলে বাড়ির সামনে এসে তাকে হুমকি দিত কয়েকজন। তিনি ঘরে না থাকার সুবাদে কেউ ঘরে প্রবেশ করে অদিতাকে ধর্ষণ করে গলা ও হাতের রগ কেটে হত্যা করে ঘরে লুটপাট করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আকরামুল হাসান বলেন, ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, অদিতাকে ধর্ষণের পর গলা ও হাতের রগ কেটে হত্যা করেছে। ঘটনাস্থল থেকে হত্যায় ব্যবহৃত একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত থাকা সন্দেহে ৩ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/মনির

  • সর্বশেষ
  • পঠিত