ঢাকা, বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে
শিরোনাম

বিমানের আরও তিন সিবিএ নেতাকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:৫৭

বিমানের আরও তিন সিবিএ নেতাকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ
দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ফাইল ছবি
নিজস্ব প্রতিবেদক

অনিয়ম, দুর্নীতি ও জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের শ্রম ইউনিয়নের (সিবিএ) আরও তিন নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার দুদক প্রধান কার্যালয়ের অনুসন্ধান সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জিজ্ঞাসাবাদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। দুদকের উপ-পরিচালক মোনায়েম হোসেনের নেতৃত্বে একটি টিম সকাল ১০টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে।

জিজ্ঞাসাবাদকৃত নেতারা হলেন- বিমান সিবিএ’র সহ-সাধারণ সম্পাদক রুবেল চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. রফিকুল আলম ও আরেক নেতা আবুল কালাম। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হলেও সিবিএ'র সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনতাসার রহমান হাজির হননি।

অনিয়ম অনুসন্ধানের অংশ হিসেবে রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) সংস্থাটির আরও তিন সিবিএ নেতাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সংস্থাটি। তারা হলেন- তৎকালীন ভাইস প্রেসিডেন্ট আজাহারুল ইমাম মজুমদার, আনোয়ার হোসেন ও মো. ইউনুস খান। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাজির হওয়ার কথা থাকলে ওইদিন দুদকে হাজির হননি সিবিএ’র সাবেক সভাপতি ও বর্তমানে বিমানের কানাডা অফিসের কান্ট্রি ম্যানেজার মশিকুর রহমান।

দুদকের অুনসন্ধান ও তদন্ত-২ এর উপ-পরিচালক মো. মোনায়েম হোসেন জানান, তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাদের যেসব কাগজপত্র দাখিল করতে বলা হয়েছিল, তা তারা দাখিল করেছেন। এগুলো যাচাই-বাছাই করা হবে।

এছাড়া বিমানের তৎকালীণ ফিন্যান্স সেক্রেটারি মো. আতিকুর রহমান, অফিস সেক্রেটারি মো. হারুনর রশিদ, পাবলিসিটি সেক্রেটারি আবদুল বারী লাভলু ও স্পোর্টস সেক্রেটারি মো. ফিরোজুল ইসলামকে আগমী ২৭ সেপ্টেম্বর দুদকে হাজির হয়ে বক্তব্য দেওয়ার কথা রয়েছে। ২৮ সেপ্টেম্বর সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার সেক্রেটারি মো. আবদুস সোবহান, উইমেন্স অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি আসমা খানম বানু, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স সেক্রেটারি গোলাম কায়সার আহমেদ, সদস্য মো. আবদুল জব্বার ও মো. আবদুল আজিজকে তলব করা হয়েছে। পাশাপাশি তাদের নিজের ও স্ত্রী-সন্তানের জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি ও আয়কর রিটার্ন সংশ্লিষ্ট কাগজপত্রসহ দুদকে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য দিতে বলা হয়েছে।

সূত্রে জানা গেছে, এরই মধ্যে তাদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিলের জন্য একটি টিম গঠন করা হয়েছে। এছাড়া অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির বিষয়ে তদন্তের জন্য ২০১৪ সালে নোটিশ দেয় দুদক।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর বিমানের অনিয়ম অনুসন্ধানে ১৭ সিবিএ নেতাকে তলব করে চিঠি পাঠায় দুদক। রোবাবর তিনজন ও আজ (সোমবার) তিনজনসহ মোট ছয়জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটি।

এর আগে গত ২৫ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্ট রুল জারি করে ওই ১৭ নেতার বিরুদ্ধে দুদকের পদক্ষেপ জানতে চান। সে বিষয়ে ওইদিন শুনানি হয়। ২০১৪ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি জারি করা এক রুলের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত মো. মশিকুর রহমানসহ বিমানের ১৭ নেতার দুর্নীতি তদন্তে দুদকসহ সংশ্লিষ্টদের আদেশ দেন। তারও আগে বিমানের সাবেক এমডি মোসাদ্দিক আহম্মেদসহ বেশ কয়েকজন সিবিএ নেতার বিদেশযাত্রায় নিষেধাজ্ঞাও দেয়া হয়েছিল।

বাংলাদেশ জার্নাল/সুজন/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত