ঢাকা, সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ১৬ মিনিট আগে
শিরোনাম

র‌্যাব যেভাবে প্রস্তুত তাতে পূজায় সমস্যা হবে না

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬:৩১  
আপডেট :
 ০১ অক্টোবর ২০২২, ১৭:১৫

র‌্যাব যেভাবে প্রস্তুত তাতে পূজায় সমস্যা হবে না
র‌্যাবের নব নিযুক্ত মহাপরিচালক (ডিজি) এম খুরশীদ হোসেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

দুর্গাপূজার মন্ডপগুলোতে র‌্যাবের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে উল্লেখ ক‌রে র‌্যাবের নব নিযুক্ত মহাপরিচালক (ডিজি) এম খুরশীদ হোসেন বলেন, সব মন্ডপে আমাদের কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। পাশাপাশি র‌্যাবের গোয়েন্দারাও সেখানে থাকবে।

শনিবার সকালে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পঅর্পণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে র‌্যাবের নবনিযুক্ত ডিজি এ কথা বলেন।

র‌্যাব ডিজি বলেন, গত বছর পুলিশ সদরদপ্তরে ডিআইজি (অপারেশন) হিসেবে কাজ করেছি। মূলত গুজব বা যেকোনো নাশকতা ঠেকানোর অভিজ্ঞতা আমার আছে। অতীতে আমরা পূজা মন্ডপে স্টাইকিং হিসেবে আনসার রাখতাম। গত বছর এটা করা হয়েছিল না; আনসারদের মোবাইল পেট্রোল হিসেবে রাখা হয়েছিল।

এবার প্রতিটি পূজামন্ডপে শ্রেণিভেদে অর্থাৎ গুরুত্ব অনুযায়ী চারজন, ছয়জন এবং সাতজন আনসার স্টাইকিং থাকছে। এরইমধ্যে র‌্যাবের পক্ষ থেকে যথযথ নিরাপত্তা গ্রহণ করা হয়েছে।

বর্তমানে সাইবার সমস্যা প্রধান সমস্যা উল্লেখ করে র‌্যাব ডিজি এম খুরশীদ হোসেন বলেন, আমরা সাইবার পেট্রোলিং করছি। অনেকে সোস্যাল মিডিয়ায় বিভিন্নভাবে মন্তব্য করেন। যেটা উস্কানি। কিছু দুষ্টুলোক আছে তারা উস্কানি দেবার চেষ্টা করবে। আমাদের বুঝতে হবে, দেশ আমাদের, সমাজ আমাদের।

আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস রাখি আমার র‌্যাব যেভাবে তৈরি আছে তাতে পূজায় কোনো সমস্যা হবে না। সমস্ত মন্ডপে আমাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। গোয়েন্দারাও আছে।

এম খুরশীদ হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের যুগপোযোগী দিক নির্দেশনার মাধ্যমে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। শুক্রবার র‌্যাব ডিজি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছি। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের মধ্য দিয়ে মহাপরিচালক হিসেবে আমার কার্যক্রম শুরু করলাম।

ইতোপূর্বে সাংবাদিকরা যেভাবে সহযোগীতা করেছেন ভবিষ্যতেও র‌্যাবকে সহযোগীতা করবেন। দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে র‌্যাব ও সাংবাদিক একসঙ্গে কাজ করছে, ভবিষ্যতে চলার পথ আরো সুগম হবে। আমরা কাঁধে কাঁধ রেখে কাজ করে যাবো।

র‌্যাব প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশের মানুষের কাছে আস্থার প্রতিক, নিরাপত্তার প্রতিক হয়ে উঠেছে জানিয়েছে র‌্যাব ডিজি বলেন, যারা সন্ত্রাসী,দুষ্কৃতিকারী তাদের কাছে র‌্যাব আতঙ্কের নাম। আমি চাই সাংবাদিক এবং র‌্যাবের গোয়েন্দাদের তথ্যের ভিত্তিতে আমাদের সদস্যরা এদেশ থেকে মাদক, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসনির্মূলে আপ্রান চেষ্টা করে যাবে। সাধারণ মানুষ যাতে নির্বিঘ্নে চলাচল করতে পারে সেই কাজে নিজেদের আত্মনিয়োগ করে যাবো।

সম্প্রতি মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার হাস বলেছেন দ্রুতই র্যাবের নিষেধাজ্ঞা বাতিল হচ্ছে না। এ সময় তিনি র্যাবকে সংস্কারের কথা জানান। মার্কিন রাষ্ট্রদূতের এমন বক্তব্যের জবাবে এম খুরশীদ হোসেন বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র র‌্যাব কর্মকর্তাদের যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সেটা সরকারিভাবে মোকাবেলা করা হচ্ছে। তারা যে সব বিষয় আমাদের কাছে চেয়েছে, এরইমধ্যে আমরা সেসব বিষয় জবাব দিয়েছি। জবাব দেবার পরে তারা আর পাল্টা প্রশ্ন করার সুযোগ পায়নি।

বাংলাদেশ জার্নাল/সুজন/এমএস

  • সর্বশেষ
  • পঠিত