ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ আপডেট : ১০ মিনিট আগে
শিরোনাম

শ্রীপুরে চাঞ্চল্যকর রানা হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার

  শ্রীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২২, ১৩:৫২

শ্রীপুরে চাঞ্চল্যকর রানা হত্যা মামলার আসামি গ্রেপ্তার
রানা হত্যা মামলার পলাতক আসামি আকাশ। ছবি- প্রতিনিধি
শ্রীপুর প্রতিনিধি

শ্রীপুরের চুরির অপবাদে যুবক রানা মিয়াকে (৩০) পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় পলাতক আসামি আকাশকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব সদস্যরা।

শনিবার বিকেলে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার জামালপুর চৌরাস্তা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কমান্ডার মেজর এ এস এম মাঈদুল ইসলাম গ্রেপ্তারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আসামি আকাশ শ্রীপুর পৌরসভার কেওয়া পশ্চিমখন্ড এলাকার আব্দুল করিমের ছেলে। সে রানা মিয়াকে পিটিয়ে হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ২ নম্বর আসামি।

র‌্যাব কর্মকর্তা মেজর এ এস এম মাঈদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত আনুমানিক ১১টায় রানাকে তার বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় আকাশ ও তার সহযোগীরা। পরে মুলাইদ (পশ্চিম পাড়া) গ্রামের পিয়ার আলী কলেজের পেছনে আকাশের ভাই শিপনের ভাঙারি দোকানের সামনে ভ্যানগাড়ি চুরির অপবাদ দিয়ে রানাকে রড, হাতুড়ি, লাঠি ও ড্রিল মেশিন দিয়ে উপর্যুপুরি আঘাত করে গুরুতর আহত করে।

খবর পেয়ে তার স্বজনেরা উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সে মারা যায়। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হলে গ্রামবাসী রানার মরদেহ নিয়ে খুনীদের গ্রেপ্তারে মানববন্ধন করে।

পরে নিহতের বাবা এ ঘটনায় শ্রীপুর থানায় মামলা দায়ের করলে আসামিরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায়। র‌্যাব ঘটনার ছায়া তদন্ত ও গোয়েন্দা নজরদারি বাড়িয়ে আসামিদের গ্রেপ্তারে তৎপরতা চালায়। পরে শনিবার বিকেলে আকাশকে গ্রেপ্তার করে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি আকাশ স্বীকার করে সেসহ অন্যান্য পলাতক আসামিরা যুবক রানা মিয়াকে নির্যাতন করে এবং হত্যাকাণ্ডের সাথে সরাসরি জড়িত।

পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আসামিকে শনিবার দিবাগত রাতে শ্রীপুর থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে বলে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা জানান।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, রোববার (২ অক্টোবর) বেলা ১১টায় আসামিকে গাজীপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্য পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কাজ করছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত