নিখোঁজের ১০ দিন পর মিললো শিশু আয়াতের ‌‘খণ্ডবিখণ্ড’ মরদেহ

প্রকাশ : ২৫ নভেম্বর ২০২২, ১৫:০৫ | অনলাইন সংস্করণ

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

শ্বাসরোধ করে হত্যা। ছবি: প্রতিনিধি

মুক্তিপণের জন্য অপহরণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় চট্টগ্রামের ইপিজেড থানার বন্দরটিলার নিখোঁজ শিশু কন্যা আয়াতকে। ছয় বছর বয়সী এই শিশুকে ছয় টুকরা করার পর তা কাট্টলী সাগরপাড়ে ফেলে দেয়া হয়। 

নিখোঁজের ১০ দিন পর শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) ইপিজেডের আকমল আলী রোড এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রোর পুলিশ সুপার নাঈমা সুলতানা। তিনি বলেন, মুক্তিপণের জন্য শিশু আয়াতকে অপহরণ করে আবির আলী নামে তাদের এক সাবেক ভাড়াটিয়া। সিসিটিভি ফুটেজে শনাক্ত করে আবিরকে বৃহস্পতিবার আটক করা হয়েছে। সে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আবির জানিয়েছেন- মুক্তিপণের উদ্দেশ্যে ঘটনার দিন বিকেলে আয়াতকে অপহরণের চেষ্টা করে সে। এ সময় চিৎকার করলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। পরে ওই শিশুর লাশ নদীতে ফেলে দেয়া হয়।

গত ১৫ নভেম্বর চট্টগ্রামের ইপিজেড থানার বন্দরটিলার এলাকার নয়ারহাট বিদ্যুৎ অফিস এলাকার বাসা থেকে পার্শ্ববর্তী মসজিদে আরবি পড়তে যাওয়ার সময় নিখোঁজ হয় আলিনা ইসলাম আয়াত। এর পরদিন শিশুর বাবা সোহেল রানা এ ঘটনায় ইপিজেড থানায় নিখোঁজের ডায়েরি করলেও কোনো হদিস মিলেনি। অবশেষে ১০দিন পর এ রহস্যের জট খুললো।

বাংলাদেশ জার্নাল/রাজু