ঢাকা, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে
শিরোনাম

আদালতে যাওয়ার সময় হামলায় সাক্ষী নিহত

  বগুড়া প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৪৩  
আপডেট :
 ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৯:০৩

আদালতে যাওয়ার সময় হামলায় সাক্ষী নিহত
আব্দুল খালেক। ছবি: প্রতিনিধি
বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার ধুনটে মসজিদের মুষ্টির চাল নিয়ে মারপিট মামলায় আদালতে যাওয়ার সময় আসামিদের হামলায় আব্দুল খালেক (৬৫) নামে এক সাক্ষী নিহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার সকাল ৮টায় উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের কোদলাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল খালেক কোদলাপাড়া গ্রামের মৃত আজাহার আলীর ছেলে।

জানা যায়, উপজেলার কোদলাপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের কোষাধ্যক্ষ একই গ্রামের মোজাম্মেল হক। প্রায় এক মাস আগে ওই মসজিদের উন্নয়নে মুসল্লিদের বাড়ি থেকে এক মণ চাল উত্তোলন করে মসজিদ কমিটি। মসজিদের কোষাধ্যক্ষ ওই চাল বাকিতে বিক্রি করে নিহত আব্দুল খালেকের ছোট ভাই আব্দুস ছাত্তারের কাছে। কিন্তু চালের টাকা পরিশোধ করতে তালবাহানা করে আব্দুস ছাত্তার। বিষয়টি নিয়ে ৩ নভেম্বর মসজিদ চত্বরে আব্দুস ছাত্তার ও মোজাম্মেল হকের মধ্যে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আব্দুস ছাত্তার বাদী হয়ে বগুড়া আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলায় মোজাম্মেল হক ও তার ছেলে ফজলুল হকসহ ৭ জনকে আসামি করা হয়। সেই মামলার সাক্ষী ছিলেন আব্দুল খালেক।

২৯ নভেম্বর মঙ্গলবার বগুড়া আদালতে হাজিরার দিন ধার্য্য ছিল। মামলার বাদী আব্দুস ছাত্তার ও তার ভাই আব্দুল খালেক মঙ্গলবার সকালের দিকে আদালতের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। পথিমধ্যে আসামিদের বাড়ির পাশের রাস্তায় পৌঁছলে বাদি আব্দুস ছাত্তার ও তার ভাই সাক্ষি আব্দুল খালেকের ওপর হামলা চালায় মামলার ১নং আসামি ফজলুল হক ও তার লোকজন। এতে আহত হন আব্দুল খালেক। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল খালেককে মৃত ঘোষণা করেন।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে নিহতের লাশ তার পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমপি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত