ঢাকা, বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৮ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ১৪ মিনিট আগে
শিরোনাম

চোরাই স্বর্ণালংকার ও হিরা বিক্রি করতে এসে গৃহকর্মী আটক

  ফরিদপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৯ নভেম্বর ২০২২, ২১:১৩

চোরাই স্বর্ণালংকার ও হিরা বিক্রি করতে এসে গৃহকর্মী আটক
প্রতীকী ছবি
ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুর শহরের একটি বাসা থেকে স্বর্ণালংকার ও হিরা চুরি করে তা বিক্রি করতে গিয়ে পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন রেনু আক্তার (৩৬) নামে এক গৃহপরিচারিকা।

মঙ্গলবার বিকালে শহরের নিলটুলী এলাকার স্বর্ণকারপট্টির একটি দোকানে চুরি করা মালামাল বিক্রি করতে এলে তাকে আটক করে পুলিশ। ওই গৃহপরিচারিকা শহরের কমলাপুর এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করেন। রেনু আক্তারের স্বামীর নাম লিটন শেখ।

জানা যায়, শহরের কমলাপুর এলাকার বাসিন্দা আব্দুস সালাম খলিফার বাসায় গৃহপরিচারিকার কাজ করতেন রেনু আক্তার। গত ২৭ নভেম্বর বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে রেনু আক্তার ওই বাসার আলমারি ভেঙে স্বর্ণালংকার ও হিরাসহ দামী অলংকার চুরি করে নিয়ে যান। এরপর থেকে রেনু আক্তার লাপাত্তা হয়ে যান। এঘটনায় আব্দুস সালাম খলিফার স্ত্রী পলি আক্তার ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ফরিদপুর কোতোয়ালি থানার এস আই শ্রীবাস গাইন জানান, মঙ্গলবার বিকালে শহরের স্বর্ণকারপট্টির নয়ন জুয়েলার্সে ওই চুরির মালামাল বিক্রি করতে আসেন রেনু আক্তার। তখন ওই জুয়েলার্সের মালিকের সন্দেহ হলে তিনি থানায় ফোন দেন। এরপর থানা থেকে গিয়ে রেনু আক্তারকে স্বর্ণালংকারসহ আটক করি।

তিনি আরো জানান, রেনু আক্তারের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার ভাড়া বাসা কমলাপুরে অভিযান চালিয়ে মাটিতে পুতে রাখা অবস্থায় স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়।

ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সুমন রঞ্জন সরকার বলেন, রেনু আক্তারকে আটকের পর তার বাসায় অভিযান চালানো হয়। এসময় তার ভাড়া বাসার মধ্যে মাটিতে গর্ত করে লুকিয়ে রাখা অবস্থায় স্বর্ণালংকার ও হিরা উদ্ধার করা হয়। যার আনুমানিক মূল্যে ১৮ লাখ ১৩ হাজার টাকা।

তিনি আরো বলেন, চুরি করা স্বর্ণালংকার ও হিরা আরো কোথাও রাখা আছে কি-না সে বিষয়ে রেনু আক্তারকে আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত