ঢাকা, শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯ আপডেট : ৪ মিনিট আগে
শিরোনাম

দুই কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা, যুবকের মৃত্যুদণ্ড

  চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ১৮:৫৭

দুই কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা, যুবকের মৃত্যুদণ্ড
মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আবুল হোসেন। ছবি: প্রতিনিধি
চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর দুই কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার দায়ে আবুল হোসেন (২৯) নামে এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওমর হায়াত মানিক নামে এক আসামিকে মামলা থেকে খালাস দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) চট্টগ্রামের বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আলীম উল্লাহ এ রায় দেন। চট্টগ্রামের বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অশোক কুমার দাশ আদালতের রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আবুল হোসেন, সীতাকুণ্ড পৌরসভার আবেদীন চৌধুরী পাড়ার বাসিন্দা। রায় ঘোষণার সময় আদালতে আবুল হোসেন ও মানিক উপস্থিত ছিলেন। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবুল হোসেনকে সাজা পরোয়ানা মূলে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে মামলায় তদন্তকারী কর্মকর্তার অবহেলা, তদন্তে গাফিলতির কারণে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পুলিশের আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০১৮ সালের ১৮ মে সীতাকুণ্ড পৌরসভার জঙ্গল মহাদেবপুর পাহাড় থেকে পুলিন কুমার ত্রিপুরার মেয়ে সুকলতি ত্রিপুরা (১৫) ও সুমন ত্রিপুরার মেয়ে ছবি রানী ত্রিপুরার (১১) মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় একই বছরের ১৯ মে নিহত ছবি রানী ত্রিপুরার বাবা সুমন ত্রিপুরা বাদী হয়ে আবুল হোসেনকে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত তিনজনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকালীন সময়ে মামলায় অভিযুক্ত রাজীব দুষ্কৃতকারীর গুলিতে নিহত হয়। পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ২ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। মামলার ২২ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৯ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়।

চট্টগ্রামের বিভাগীয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি অশোক কুমার দাশ বলেন, মামলাটির বিচারিক পর্যায়ে ১৯ জন সাক্ষী দেন। এছাড়া প্রধান আসামি আবুল হোসেন আদালতে ঘটনার দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। তাকে মৃত্যু নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ঝুলিয়ে রেখে দণ্ড কার্যকর করার জন্য আদালত আদেশ দিয়েছেন। এছাড়া আসামি মানিককে মামলার দায় থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এমপি

  • সর্বশেষ
  • পঠিত