ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ আপডেট : ১৩ মিনিট আগে
শিরোনাম

স্কুল থেকে চুরি হওয়া সেই শিশু ফিরেছে মায়ের কোলে

  লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২:৫৩

স্কুল থেকে চুরি হওয়া সেই শিশু ফিরেছে মায়ের কোলে
স্কুল থেকে চুরি হওয়া সেই শিশু ফিরেছে মায়ের কোলে। ছবি: প্রতিনিধি

লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার তোরাবগঞ্জ অগ্রণী স্কুলের ক্যাম্পাস থেকে চুরি হওয়া ৯ মাস বসয়ী শিশু মালিহা ইসলাম ওহিকে পাওয়া গেছে।

গতকাল রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত সাড়ে ১২ টার দিকে রামগতি-কমলনগরের সড়কের পাশে উপকূল কলেজ সংলগ্ন মিয়াপাড়া এলাকা থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। পরে শিশুটিকে রাতেই তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেয় পুলিশ।

শিশু মালিহার মা মরিয়ম বেগম তার মেয়েকে ফিরে পাবার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গতরাত ১২টা পর্যন্ত আমরা থানায় ছিলাম। সেখান থেকে বাড়ি আসার ১০ মিনিটের মাথায় থানা থেকে আমাদের কাছে ফোন আসে। থানায় গিয়ে আমার মেয়েকে দেখতে পাই। পরে আমার কাছে মালিহাকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, চারদিন পর আমার মেয়ে আমার কোলে ফিরেছে। আমার বুকটা ভরে গেছে। চুরির সাথে যে নারী জড়িত, তাকে যেন গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হয়। আমি তার বিচার দাবি করছি।

কমলনগর থানার ওসি (তদন্ত) আবদুল জলিল বলেন, রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে থানার নিকট উপকূল কলেজের পিছনে মাটির রাস্তা দিয়ে জনৈক পথচারী ইউছুপ বাড়ি যাওয়ার সময় কম্বল মোড়ানো একটি শিশু দেখতে পায়। তিনি চিৎকার দিয়ে লোকজন জড়ো করে। পরে এলাকার লোকজন থানায় খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং তার পরিচয় নিশ্চিত করে। এর আগে শিশুর মা থানায় একটি জিডি করে। সে সূত্রে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রাখে।

ঘটনার বিবরণে শিশুর মা মরিয়ম বেগম জানান, চুরি হওয়া ওহির বড় বোন সাবিহা ইসলাম মিহি (৬) অগ্রণী রেসিডেন্সিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের নার্সারী শ্রেণির ছাত্রী। গত বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা অনুষ্ঠান ছিল। সেখানে মিহি 'যেমন খুশি তেমন সাজো' অনুষ্ঠানে যোগ দেয়। এতে মালিহাকে নিয়ে তার মা মরিয়মও বিদ্যালয়ে যায়। মিহিকে সাজানোর জন্য চুলের ক্লিপ ও বেল্ট আনার জন্য বিদ্যালয়ের পাশেই বাজারে যান মা মরিয়ম। এসময় মায়া নামে ওই বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর কাছে মালিহাকে রেখে যান। এরমধ্যেই মায়ার কোল থেকে অচেনা এক নারী মালিহাকে নিয়ে যায়। সুযোগ বুঝে সেখান থেকে শিশুটিকে নিয়ে সটকে পড়েন ওই নারী। এরপর থেকে তাকে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল এসে বিদ্যালয়ের ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা যাচাই করে দেখতে পায় মাথায় লাল হিজাব, মুখে মাস্ক ও কালো বোরকা পরিহিত এক নারী শিশুটিকে কোলে নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছে। বাজারের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সিসি ক্যামেরা যাচাই করেও একই দৃশ্য দেখা গেছে।

শিশু চুরির ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও উদ্ধারের দাবি জানানো হয়। মানববন্ধন করেছে পরিবারের লোকজন ও এলাকাবাসী। তাকে উদ্ধারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা চালায়। অবশেষে চারদিন পর শিশুটি উদ্ধার হয়ে তার মায়ের কোলে ফিরেছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত