ঢাকা, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শিরোনাম

মা প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যাওয়ায়, মেয়ের আত্মহত্যা

  বরিশাল প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১১ জুন ২০২৪, ১৮:১৯

মা প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যাওয়ায়, মেয়ের আত্মহত্যা
মা প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যাওয়ায়, মেয়ের আত্মহত্যা। ছবি: প্রতিনিধি

বরিশালের বানারীপাড়ার ধারালিয়া গ্রামে পরকিয়া প্রেমিকের সাথে মা পালিয়ে যাওয়ায় গলায় ফাঁসে আত্মহত্যা করেছে মেয়ে জান্নাতুল (১৩)। সে উপজেলার সলিয়াবাকপুর ইউনিয়নে বেতাল গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী নাসিরউদ্দিন পাপনের মেয়ে এবং উপজেলার সৈয়দ বজলুল হক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

জান্নাতুলের দাদী ফিরোজা বেগম জানিয়েছেন, ছেলে সৌদি থাকাবস্থায় জান্নাতের মা শান্তা তাদের সাথেই থাকতেন। ওই ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে। প্রেমের বিষয়টি জানার পর তাকে বারবার ওই পথ থেকে সরে আসার জন্য বলা হয়। কিন্তু কোনভাবেই সে কথা শুনতো না। এ কারণে তাদের ঘর ছেড়ে ভাড়া বাসায় গিয়ে ওঠে।

সর্বশেষ গতকাল সোমবার শান্তার বাসায় বেড়াতে যান তিনি। সেখান থেকে বাড়িতে আসার সময় ছোট নাতীকে নিয়ে আসেন তাদের বাড়িতে। আজ মঙ্গলবার সকালে খবর পান তার বড় নাতনী জান্নাত গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তার মাকেও (শান্তা) পাওয়া যাচ্ছে না।

ফিরোজা বেগম আরও বলেন, তার নাতনী মেধাবী ছিল। সকালে ঘুম থেকে উঠে মাকে না দেখে সে বুঝতে পারে তার মা প্রেমিকের সাথে পালিয়েছে। লোকলজ্জায় জান্নাত বাথরুমে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে তার ধারণা। বেলা ১২টার দিকে মরদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায় বানারীপাড়া থানা পুলিশ।

মরদেহ উদ্ধার করতে যাওয়া বানারীপাড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোমিনউদ্দিন জানিয়েছেন, নিহতের দাদী এবং গ্রামবাসীর কাছ থেকে জানতে পেরেছেন জান্নাতের মায়ের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই সম্পর্কে সে তার প্রেমিকের সাথে পালিয়েছে। বিষয়টি সকালে জানতে পেরে লজ্জায় জান্নাত আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

তিনি ‍আরও জানান, দাদা-দাদী ও নানাকে খবর দেয়া হয়েছে। লাশের ময়নাতদন্তের জন্য শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওএফ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত