ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৯ ফাল্গুন ১৪২৬ অাপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৩ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:২৮

প্রিন্ট

বানিয়াচংয়ে মিনারা হত্যা, ২৯ আসামি কারাগারে

বানিয়াচংয়ে মিনারা হত্যা, ২৯ আসামি কারাগারে
হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষের সময় টেটাবিদ্ধ করে গৃহবধূ মিনারা খাতুনকে (৩৫) হত্যা করার মামলায় ২৯ আসামিকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে হবিগঞ্জের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম শাহিনুর আক্তার এ নির্দেশ দেন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, মিনারা হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ২৯ আসামি মঙ্গলবার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন প্রার্থনা করেন। আদালতের বিচারক দীর্ঘ শুনানি শেষে জামিন না মঞ্জুর করে সবাইকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আসামিরা হলেন, সমছু মিয়া, ছল্লুক মিয়া, আব্দুর রহমান, হাবিবুর রহমান, আমির উদ্দিন, শাহজাহান মিয়া, আব্দুল আহাদ, আলী আজম, মোহাম্মদ আলী, মোস্তাকিম আহম্মেদ, সোহাগ মিয়া, শহীদ মিয়া, বিল্লাল মিয়া, ইমরান মিয়া, আব্দাল মিয়া, আব্দুল মজিদ, এখলাছ মিয়া, সোহান মিয়া, কামাল মিয়া, মিজানুর রহমান, শানু মিয়া, শরাফত উল্লা, আহাম্মদ আলী, শিশু মিয়া, সাকিব মিয়া, পত্রিঙ্গা বিবি, সুমতা বিবি, রফিকুন্নেছা প্রমুখ।

কাঠখাল গ্রামের পাতনী বাড়ি ও চৌকিদার বাড়ির লোকদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল একই গ্রামের কাছুম আলী এবং তার লোকজনের। এ নিয়ে একাধিকবার সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটেছে। কয়েকটি মামলা চলমান রয়েছে। তবে আব্দুস শহীদের নেতৃত্বাধীন পাতনী বাড়ি ও চৌকিদার বাড়ির পক্ষে ১১টি গোষ্ঠীর লোক থাকায় এলাকায় তাদের আধিপত্য বেশি। চলতি বছরের ২৯ অক্টোবর সকালে পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পুলিশ গিয়ে শান্ত করে। পরবর্তীতে বিকেলে ১১ গোষ্ঠীর লোকজন এসে কাছুম আলীর বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় মিনারা খাতুনের বুকের ডানদিকে একটি টেটা বিঁধে যায়।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠান। টেটার আঘাত মিনারার হৃদযন্ত্রে স্পর্শ করায় তাকে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনে নেয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মিনারাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

মিনারার স্বজনরা জানান, তার চার ছেলে এবং দুই মেয়ে রয়েছে। তিনি কোনো ধরনের বিরোধের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। তারপরও তাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত