ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, ৪ মাঘ ১৪২৬ অাপডেট : ১৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:১১

প্রিন্ট

নদীর বুকে সবজি চাষ হচ্ছে দিনাজপুরে

নদীর বুকে সবজি চাষ হচ্ছে  দিনাজপুরে
দিনাজপুর প্রতিনিধি

দিনাজপুর জেলার উপর দিয়ে ছোট বড় প্রায় ১৯টি নদী প্রবাহিত হচ্ছে । বর্ষা মৌসুমে নদীগুলোতে পানি থাকলেও বেশির ভাগ সময়ে নদীগুলো শুকিয়ে যায়। নদী সংস্কারের অভাবে দিনাজপুর জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত গর্ভেশ্বরী, পূণর্ভবা, আত্রাই, ঢেপা, ইছামতিসহ কয়েকটি নদীর বুকে বিভিন্ন স্থানে চলছে চাষাবাদ।

পানি না থাকায় জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত নদীগুলোর বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন ফসলের চাষাবাদ চলছে। বোরো ধানের বীজ, আলু, সরিষা, কফি, মরিচসহ বিভিন্ন ফসলের আবাদ। শুকনা মৌসুমের আগেই নদী শুকিয়ে যাওয়ার ফলে হারিয়ে যাচ্ছে অধিকাংশ প্রজাতির মাছ ও জলজ প্রাণী।

নদীগুলোর ড্রেজিং না করায় গর্ভেশ্বরী নদীসহ কয়েকটি নদীর প্রস্থ ও গভীরতা কমে প্রায় সমতল হয়ে গেছে। বর্ষা মৌসুমে পলি ও বালু পড়ে বর্তমানে নদীগুলো ভরাট হয়ে মরা নদীতে পরিণত হয়েছে। তাই নদীতে জেগে উঠা চরে চলছে চাষাবাদ-এমনটাই বললেন গর্ভেশ্বরী নদীতে চাষাবাদকারী চাষীরা।

গর্ভেশ্বরী নদীর বুকে মরিচ চাষ করা কৃষক হরেন চন্দ্র রায় জানান, গর্ভেশ্বরী নদীর পাড়ে আমার বাড়ি , ছোটবেলায় দেখতাম গর্ভেশ্বরী নদীর খড় স্রোতা থাকে সময় সময় । কালের বির্বতনে বর্ষা মৌসুমে পানি থাকলেও খড়ার সময়ে গর্ভেশ্বরীতে কোন পানি থাকেনা। নদীর পাড়ে আমার বাড়ি থাকায় আমি নদীর বুকে এখন মরিচ চাষ করছি। এর আগে ফুলকপি, বাধাকপি চাষ করেছিলাম। এখানে তেমন কোন রাসায়নিক সার প্রয়োগ করতে হয় না ।

দিনাজপুর নদী বাঁচাও আন্দোলন কমিটির সভাপতি শাহদাৎ শাহ বলেন, আমাদের জেলার উপর দিয়ে যে নদীগুলো প্রবাহিত হচ্ছে তার বেশির ভাগ ভরাট হয়ে গেছে। দিনাজপুর পূণর্ভবা নদীর তীরে অবস্থিত হলেও সেই নদীটিও ভরাট হয়ে গেছে। অনেকবার আমরা নদী ড্রেসিং করে নদী খনন করার জন্য আন্দোলন করেও সরকার কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করে নি । কিছু ভূমি দস্যু প্রভাবশালী ব্যক্তি স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে নদী ভরাট করে বড় অট্টালিকা তৈরী করছে। গর্ভেশ্বরী নদী আজ বিলুপ্তির পথে ।

দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী ফইজুল ইসলাম জানান, দিনাজপুরের বেশির ভাগ নদীগুলো ভরাট হওয়ার স্থানীয় কিছু ব্যক্তি দখল করে চাষাবাদ করছে । আমরা পানি সম্পদ মন্ত্রাণালয়ে দিনাজপুরের কয়েকটি নদীকে ড্রেসিং করে সারা বছর নদী ধরে রাখার জন্য পরামর্শ স্বরুপ চিঠি পাঠিয়েছি। সরকারও নদী ড্রেসিং করার ব্যাপারে অনেকটা আন্তরিক। চলতি বছরেই কয়েকটি নদীকে ড্রেসিং করা হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close
close