ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ অাপডেট : ৫ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ২০:২৫

প্রিন্ট

স্বাধীনতার পর প্রথম মন্ত্রী বঞ্চিত সিরাজগঞ্জ

স্বাধীনতার পর প্রথম মন্ত্রী বঞ্চিত সিরাজগঞ্জ
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা অর্জনের পর এই প্রথম বঙ্গবন্ধুর একান্ত সহচর জাতীয় নেতার অন্যতম শহীদ এম মনসুর আলীর সিরাজগঞ্জের মানুষ মন্ত্রী বঞ্চিত হলো।

রোববার বিকালে মন্ত্রীদের নাম ঘোষণার সময় অনেক আশা নিয়ে টেলিভিশনের সামনে বসেছিল জেলা আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীসহ সিরাজগঞ্জবাসী। তবে মন্ত্রীর তালিকায় জেলার কোনো নেতার নাম না থাকায় হতাশ হয়ে পড়েন তারা। তবে এখনও হাল ছাড়েনি জেলাবাসী।

স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ বলছেন, ১৯৭১ সালে মুজিবনগর সরকারের মন্ত্রী ছিলেন জাতীয় চার নেতার অন্যতম সিরাজগঞ্জের কৃতি সন্তান শহীদ এম মনসুর আলী। ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধু সরকারের যোগাযোমন্ত্রী ও পরে প্রধানমন্ত্রী নিযুক্ত হন তিনি।

একই সময়ে বেলকুচি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য আব্দুল মমিন তালুকদারও প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। জিয়াউর রহমান সরকারের আমলে মন্ত্রিত্ব পান ডা. এম এ মতিন। পরবর্তীতে এরশাদের আমলেও মন্ত্রী এবং উপ-প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

১৯৯১ সালে খালেদা জিয়ার সরকারে সিরাজগঞ্জ-৬ (চৌহালী) আসন থেকে নির্বাচিত আনছার আলী সিদ্দিকী প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পান। ১৯৯৬ সালে শেখ হাসিনা সরকারে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী পরে স্বরাষ্ট্র এবং গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন মোহাম্মদ নাসিম। একই সরকারে শিল্প উপ-মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন হাসিবুর রহমান স্বপন।

২০০১ সালে চারদলীয় জোট সরকারে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। ২০০৮ সালে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নিযুক্ত হন আব্দুল লতিফ বিশ্বাস। ওই সরকারে মন্ত্রীর পদমর্যাদায় প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রশাসন বিষয়ক উপদেষ্টা নিযুক্ত হন এইচ টি ইমাম।

২০১৪ সালে মহাজোট সরকার টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতায় এলে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন মোহাম্মদ নাসিম। এবারে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জেলার ৬টি সংসদীয় আসনে অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ী হন আওয়ামী লীগ প্রার্থীরা। বিপুল বিজয়ের পুরস্কার হিসেবে অন্তত একজন মন্ত্রী পাবেন এমনটাই আশা ছিল নেতা-কর্মী ছাড়াও সিরাজগঞ্জবাসীর।

ধারণা ছিল জাতীয় চার নেতার অন্যতম শহীদ এম মনসুর আলীর ছেলে মোহাম্মদ নাসিম আবারও মন্ত্রীত্ব পাবেন এবং সিরাজগঞ্জ-২ আসনের নবনির্বাচিত এমপি অধ্যাপক ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না মন্ত্রী হবেন মর্মে আলোচনাও উঠেছিল। কিন্তু ঘোষিত মন্ত্রিপরিষদে সিরাজগঞ্জের কারও নাম না থাকায় সে আশা এখন শূন্যের ঘরে পৌঁছেছে।

এদিকে সিরাজগঞ্জ স্বার্থরক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ডা. জহুরুল হক রাজাসহ অনেক প্রবীণ ব্যক্তি সাংবাদিকদের বলেন, ‘স্বাধীনতার পর প্রথমবারের মতো মন্ত্রী বঞ্চিত হলো সিরাজগঞ্জবাসী। এতে সিরাজগঞ্জবাসীর মধ্যে হতাশা থাকলেও জননেন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আস্থা রয়েছে।’

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close