ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, ৪ মাঘ ১৪২৬ অাপডেট : ৪১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫৫

প্রিন্ট

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সাংসদ বাবুর মতবিনিময়

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সাংসদ বাবুর মতবিনিময়
নিজস্ব প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে পাইকগাছা-কয়রাসহ বিভিন্ন এলাকার শিক্ষার্থীদের সাথে মত বিনিময় সভা করেছেন খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য আখতারুজ্জামান বাবু। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ক্যাফেটেরিয়ার টিচার্স লাউঞ্জে ঢাকাস্থ পাইকগাছা ছাত্রকল্যাণ সভা আয়োজিত এক মত বিনিময় সভায় তিনি অংশ নেন। টানা ৩ ঘণ্টাব্যাপী আলোচনা সভায় তিনি শিক্ষার্থীদের বক্তব্য মনোযোগ সহকারে শোনেন এবং সমাধানের আশ্বাস দেন।

এ সময় আখতারুজ্জামান বাবু বলেন, ২০০৭ সালে প্রলয়ঙ্করী ঘূর্ণিঝড় সিডরের ফলে এই সংসদীয় আসনের কয়রা ও পাইকগার বিভিন্ন এলাকা ব্যাপকভাবে আক্রান্ত হয়। বিশেষ করে কয়রা-পাইকগাছা এলাকার বেড়িবাধগুলো মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই আমার প্রথম কাজ হবে এই অঞ্চলকে বাঁচাতে ৫৫ কিলোমিটার বেড়িবাধ নির্মাণ করা। ইতিমধ্যে আমি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সাথে কথা বলেছি। আশা করি খুব দ্রুত কাজটি শুরু করতে পারবো।

তিনি বলেন, বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণ আমাদের সুন্দরবন। সুন্দরবনকে কেন্দ্র করে কয়রায় একটি পর্যটন শিল্প গড়ে তোলার পরিকল্পনা রয়েছে। শহর থেকে যাতে পর্যটকরা দ্রুততম সময়ের মধ্যে সুন্দরবন দর্শনে আসতে পারে সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

পাইকগাছা কয়রাকে মাদক মুক্ত করার ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, মাদকের প্রকোপে আমাদের যুব সমাজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। মাদক বিক্রেতা ও মাদকসেবীদের আমি সতর্ক করছি। খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পাইকগাছা কয়রায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করা হবে। মাদকের বিষয়ে আমাদের অবস্থান জিরো টলারেন্স।

সাংসদ বাবুর সাথে শিক্ষার্থীদের মত বিনিময়কে ইতিবাচক হিসেবে বলছেন শিক্ষার্থীরা। তারা জানান, অতীতে পাইকগাছা-কয়রার কোনো সাংসদ রাজধানীতে শিক্ষানবিশ কোনো শিক্ষার্থীদের সাথে কোন ধরণের মতবিনিময় সভায় অংশ নেননি। এমনকি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানালেও কখনো সাড়া দেননি কেউ। তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধি হিসেবে সাংসদ আখতারুজ্জামান বাবু যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন সেটা স্থানীয় রাজনীতিবিদদের জন্য অনুসরণীয় হয়ে থাকবে।

ঢাকাস্থ পাইকগাছা ছাত্রকল্যাণ সংস্থা আয়োজিত এ মত বিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ও সহকারী প্রোক্টর মহিউদ্দিন মাহী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ আয়ুব আলী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জিএম মোরশেদ বাওয়ালি, সাবেক ছাত্রনেতা ও ঢাকাস্থ পাইকগাছা ছাত্র কল্যাণ সংস্থার উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য শেখ ফরহাদ উজ্জমান তুষার আফি আজাদ বান্টি, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তসলিম হুসাইন তাজ, ঢাকাস্থ পাইকগাছা ছাত্রকল্যাণ সংস্থার সভাপতি শেখ হারুন অর রশিদ, সাধারণ সম্পাদক শেখ তৌফিকুর রহমান ওরিন, ঢাকাস্থ কয়রা ছাত্রকল্যাণের সভাপতি মোঃ শামিম ওসমান, সাধারণ সম্পাদক রেজাউল ইসলাম সজিব, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়স্থ খুলনা জেলা ছাত্র কল্যাণ সমিতি (সুন্দরবন)’র সাবেক সভাপতি ও সাবেক ছাত্রনেতা হাফিজুর রহমান হাফিজ, সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক শাহ শামসিল আরেফিন রিয়েল প্রমুখ।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close
close