ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭ ফাল্গুন ১৪২৬ অাপডেট : ১৪ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০১:২৫

প্রিন্ট

নিজেদের জীবন রক্ষার্থে গুলি চালাতে বাধ্য হয় বিজিবি

নিজেদের জীবন রক্ষার্থে গুলি চালাতে বাধ্য হয় বিজিবি
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলায় জব্দকৃত গরু ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় চোরাকারবারি ও বিজিবি’র সদস্যদের মাঝে হতাহতের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে ৫০ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় বিজিবি ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনে উক্ত হতাহতের ঘটনার বিষয়ে প্রেস ব্রিফিং এ লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান ৫০ বিজিবির অধিনায়ক লে: কর্নেল তুহিন মো. মাসুদ।

তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, চোরাকারবারিরা পরিকল্পনামূলক ভাবে জব্দকৃত গরু বিজিবির কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ধারালো দেশিয় অস্ত্র নিয়ে বিজিবির সদস্যদের উপর চোরাকারবারিরা হামলা করলে নিজেদের জীবন রক্ষার্থে গুলি চালাতে বাধ্য হয় বিজিবি। বিজিবির ছোড়া গুলিতে ৩ চোরাকারবারি নিহত হয় ও ৫ জন বিজিবির সদস্য আহত হয়।

তিনি আরো বলেন, উক্ত ঘটনায় ইন্ধনদাতাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় এনে বিচারের ব্যবস্থা করা হবে।

এই ঘটনায় হরিপুর বেতনা সীমান্তের বহরমপুর এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিজিবি সদস্যদের বিচার দাবি করেন নিহতদের পরিবার ও এলাকাবাসী।

অপরদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে প্রধান করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি করেছেন জেলা প্রশাসক ড. কামরুজ্জামান সেলিম।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় ঠাকুরগাঁও হরিপুর উপজেলায় বিজিবি’র জব্দকৃত গরু ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় চোরাকারবারি ও বিজিবি'র সংঘর্ষের সময় গুলিতে ৩ জন নিহত ও ১৬ জন সাধারণ মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়। এসময় ৫ জন বিজিবি’র সদস্য আহত হয়। গুলিবিদ্ধরা দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ ও বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত