ঢাকা, সোমবার, ২০ মে ২০১৯, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬ অাপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৫ মে ২০১৯, ১৭:৪৪

প্রিন্ট

শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা, নানাকে গণধোলাই

শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা, নানাকে গণধোলাই
পঞ্চগড় প্রতিনিধি

পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলায় আট বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে আব্দুল খালেক (৬২) নামে এক বৃদ্ধকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে স্থানীয়রা।

বুধবার তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়। আব্দুল খালেকের বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের রানীগঞ্জ-দোহসুহ এলাকায়। সে ওই এলাকার মকছেদ আলীর ছেলে। নির্যাতিত শিশুটির সম্পর্কে নানা হবেন আব্দুল খালেক।

এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা বাদি হয়ে আটোয়ারী থানায় একটি মামলা করেছেন। এদিকে নির্যাতিত শিশুটিকে গত মঙ্গলবার বিকেলে প্রথমে আটোয়ারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

পরে সন্ধায় শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। বর্তমানে শিশুটি সেখানেই চিকিৎসাধীন আছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, জেলার আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের রানীগঞ্জ-দোহসুহ এলাকার মকছেদ আলীর ছেলে আব্দুল খালেক (৬২) মঙ্গলবার দুপুরে একই উপজেলার ধামোর ইউনিয়নের বন্দরপাড়া ভাগনির বাড়িতে বেড়াতে যান। মামা আসায় ভাগনি তার ৮ বছরের মেয়েকে বাড়িতে রেখে বাড়ির কাছের একটি দোকানে যান।

এই সুযোগে আব্দুল খালেক শিশুটিকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। পরে শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশি এসে তাকে উদ্ধার করে আব্দুল খালেককে আটক করে রাখে।

এ সময় স্থানীয়রা তাকে গণধোলাই দিয়ে আটোয়ারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন সুলতানাকে খবর দেয়। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশকে নির্দেশ দেন।

পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে পরদিন আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

মঙ্গলবার রাতেই ওই শিশুর বাবা বাদি হয়ে আব্দুল খালেককে আসামি করে আটোয়ারী থানায় একটি মামলা করেন।

আটোয়ারী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, আব্দুল খালেককে স্থানীয়রা আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। নির্যাতিত শিশুটির বাবা বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছেন। তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/জেডআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close