ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে English

প্রকাশ : ১৫ জুলাই ২০১৯, ১১:০৮

প্রিন্ট

দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেয়া হচ্ছে এরশাদের মরদেহ, থাকবে ৩ ঘণ্টা

জাপা কার্যালয়ে নেয়া হচ্ছে এরশাদের মরদেহ
নিজস্ব প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সদ্যপ্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের দ্বিতীয় জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার বেলা পৌনে ১১টায় জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় তার দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নামাজে জানাজায় অংশ নেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া, চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরীসহ অন্যান্য সংসদ সদস্যরা।

এর আগে বেলা সোয়া ১০টার দিকে তার মরদেহ বহনকারী গাড়িটি জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় পৌঁছায়।

কিছুক্ষণ পর এরশাদের মরদেহ কাকরাইলের দলীয় কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে নেতাকর্মীরা সাবেক এই রাষ্ট্রপতির প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাবেন। এখানে বেলা ১২টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত এরশাদের মরদেহ রাখা হবে।

এরপর বাদ আসর বায়তুল মোকাররমে এরশাদের আরও একটি জানাজা হবে। এর পর মরদেহ আবারও নেয়া হবে সিএমএইচের হিমঘরে।

গতকাল রোববার বাদ জোহর ক্যান্টনমেন্ট জামে মসজিদে এরশাদের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর তার মরদেহ সর্বসাধারণ ও নেতাকর্মীদের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য কাকরাইলে জাতীয় পার্টির অফিসে নেওয়া হয়। তারপর সিএমএইচের হিমঘরে তাকে রাখা হয়।

জাতীয় পার্টির নেতারা জানিয়েছেন, আগামীকাল মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় হেলিকপ্টারে করে এরশাদের মরদেহ রংপুর নিয়ে যাওয়া হবে। সেখানে রংপুর জেলা স্কুল মাঠে/ঈদগাহ মাঠে বাদ জোহর তার চতুর্থ জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। এদিন বিকেলেই ঢাকায় এনে সামরিক কবরস্থানে দাফন করা হবে এরশাদকে। পরদিন বুধবার রাজধানীর গুলশানের আজাদ মসজিদে এরশাদের কুলখানি অনুষ্ঠিত হবে।

সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রোববার (১৪ জুলাই) সকাল পৌনে ৮টায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন এরশাদ।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত