ঢাকা, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬ আপডেট : ১৩ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৯, ১৫:৫০

প্রিন্ট

শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানির দায়ে অধ্যক্ষের ১০ বছর কারাদণ্ড

শিক্ষিকাকে শ্লীলতাহানির দায়ে অধ্যক্ষের ১০ বছর কারাদণ্ড
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ায় কলেজ শিক্ষিকার শ্লীলতাহানি মামলায় একই কলেজের অধ্যক্ষের ১০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান আদালতে আসামির উপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন- কুষ্টিয়া শহরের মিলপাড়ার বাসিন্দা চৌধুরী আব্দুল আলীর ছেলে এবং সৈয়দ মাছুদ রুমী কলেজের অধ্যক্ষ চৌধুরী নুরুদ্দিন মো. সেলিম ওরফে সজল চৌধুরী (৫২)।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৩০ মার্চ দুপুরে সৈয়দ মাছুদ রুমী কলেজের মহিলা কমন রুমের ওয়াস রুম সেরে বের হওয়ার সময় আসামি কলেজের অধ্যক্ষ চৌধুরী নুরুদ্দিন মো. সেলিম ওরফে সজল চৌধুরী জোর পূর্বক এই শিক্ষিকার শ্লীলতাহানি ঘটান। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী শিক্ষিকা নিজেই বাদি হয়ে এপ্রিল মাসের ৭ তারিখে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আইনের দণ্ডবিধি ১০ ধারায় অভিযোগ এনে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ১৩ আগষ্ট আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন পুলিশ।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ কৌঁসুলী আকরাম হোসেন দুলাল জানান, কুষ্টিয়া মডেল থানার শিক্ষিকার শ্লীলতাহানির দায়ে একই কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে করা সন্দেহাতীত প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ১০ বছর কারাদণ্ডসহ ১ লক্ষ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ছয় মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত
close
close