ঢাকা, শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ১৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩০ আগস্ট ২০১৯, ১৫:০৫

প্রিন্ট

মাতাল পুলিশকে জুতাপেটা করলো তরুণী

মাতাল পুলিশকে জুতাপেটা করলো তরুণী

রাজশাহী প্রতিনিধি

মাতাল অবস্থায় তরুণীকে উত্ত্যক্ত করে জুতাপেটা খেয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা। বৃহস্পতিবার রাতে রাজশাহীর লক্ষ্মীপুরের কাঁচাবাজার এলাকায় এ কাণ্ড ঘটে।

অভিযুক্ত সাব্বির হোসেন (৩০) নগর পুলিশের পবা থানায় কর্মরত ছিলেন। এক সময় পরিবার নিয়ে সাব্বির নগরীর ওই এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। এ ঘটনার পর সাব্বিরকে সেখান থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানিয়েছে নগর পুলিশ।

রাজপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হায়দার আলী খান বলেন, রাতে তার ডোপ টেস্ট করা যায়নি। পরে বিষয়টি নগর পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। তারাই এনিয়ে ব্যবস্থা নেবেন।

এদিকে মাদক সেবনের বিষয়টি স্বীকার করে সাব্বির বলেন, মাঝেমধ্যে একটু আধটু খান। আর নারীদের উত্ত্যক্তের বিষয়টি দুর্ঘটনা বলে দাবি করেন তিনি।

আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, শুক্রবার সকাল পর্যন্ত কনস্টেবল সাব্বিরের বিরুদ্ধে কেউ লিখিত অভিযোগ দেননি। কিন্তু যেহেতু একটা অভিযোগ উঠেছে তাই তাকে থানা থেকে রাতেই প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে নেয়া হয়েছে। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, প্রায় প্রতিদিনই ওই এলাকায় গিয়ে নারীদের নানাভাবে উত্ত্যক্ত করেন কনস্টেবল সাব্বির। বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে ওই এলাকার এক তরুণীকে উত্ত্যক্ত করেন সাব্বির। এতে জুতা খুলে কনস্টেবল সাব্বিরকে পেটাতে শুরু করেন তরুণী। এ সময় তার সঙ্গে যোগ দেন বিভিন্ন সময় উত্ত্যক্তের শিকার আরও কয়েক তরুণী। পরে এলাকাবাসীও যুক্ত হয়ে উত্তমমধ্যম দেয় তাকে।

প্রাণ বাঁচাতে বাসায় ঢুকে পড়েন তিনি। পরে ওই বাড়ি ঘেরাও করে এলাকাবাসী। এনিয়ে উত্তেজনা ছড়ালে ঘটনাস্থলে আসে রাজপাড়া থানা পুলিশ। পরে পুলিশ তাকে হেফাজতে নিলে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত