ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:২৮

প্রিন্ট

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, কারাগারে বৃদ্ধ

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, কারাগারে বৃদ্ধ
নরসিংদী প্রতিনিধি

নরসিংদীর মনোহরদীতে ১৪ বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানালে ওই কিশোরীকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেয়া হয়।

বিষয়টি জানাজানি হলে দেড় লাখ টাকায় রফার চেষ্টা চালায় ধর্ষক। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যানের হস্থক্ষেপে মঙ্গলবার অভিযুক্ত দুলাল মিয়াকে পুলিশে শোপর্দ করা হয়। দুলাল মিয়া (৬৫) বড়চাপা ইউনিয়নের বীর মাইজদিয়া গ্রামে আব্দুল জব্বারের ছেলে।

নির্যাতিতার পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, প্রায় ৩ মাস আগে বৃদ্ধ দুলাল মিয়া পানি খাওয়ার নাম করে তাদের বাড়িতে যায়। সে সময় ধর্ষিতার পরিবারের লোকজন কৃষি কাজের জন্য বাড়ির বাইরে ছিলো। বাড়িতে একা পেয়ে দুলাল মিয়া কিশোরীকে ধর্ষণ করে। এরপর বিষয়টি কাউকে জানালে কিশোরীকে মেরে ফেলার হুমকি দেয় দুলাল।

জীবন বাঁচাতে ধর্ষিতা কিশোরী কাউকে কিছু বলেনি। কিন্তু কয়েক মাস পর ধর্ষিতা কিশোরী অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়লে এলাকায় বিষয়টি জানাজানি হয়। এরই মধ্যে চতুর ধর্ষক বিষয়টি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের শরণাপন্ন হয়। একইসাথে ঘটনা ধামাচাপা দিতে দেড় লাখ টাকা উৎকোচের প্রস্তাব দেয়। পরে ইউপি চেয়ারম্যান তাকে পুলিশে সোপার্দ করেন।

এঘটনায় নির্যাতিতার বাবা মনোহরদী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন।

মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বলেন, ধর্ষিতা কিশোরীটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে গ্রেপ্তারের পর দুলাল মিয়াকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত