ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:২৬

প্রিন্ট

যৌতুকের টাকার জন্য অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর গলা টিপে হত্যা

যৌতুকের টাকার জন্য অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীর গলা টিপে হত্যা
মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

বড়লেখায় অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ইমা বেগমকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন স্বামী জামাল উদ্দিন (২৩)। মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বড়লেখা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের সিনিয়র হাকিম হরিদাস কুমারের খাস কামরায় ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন তিনি।

পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে ঘুমন্ত অবস্থায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করেন বলে স্বীকারোক্তি দেন জামাল। জবানবন্দি গ্রহণ করে তাকে জেলহাজতে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন- মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বড়লেখা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কৃষ্ণ মোহন দেবনাথ।

তিনি বলেন, ইমাকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন তার স্বামী জামাল উদ্দিন। জবানবন্দি শেষে বিচারক তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দক্ষিণভাগ উত্তর ইউপির বড়খলা গ্রামের ইসলাম উদ্দিনের মেয়ে ইমা বেগমের সঙ্গে চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে বড়লেখা সদর ইউপির গঙ্গারজল গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে জামাল উদ্দিনের বিয়ে হয়। ৭ মাসের অন্তঃস্বত্ত্বা স্ত্রী ইমার সঙ্গে স্বামী জামালের পারিবারিক কলহ চলছিলো। যৌতুকের জন্য জামাল প্রায়ই ইমাকে মারধর করতেন। এরই জের ধরে গত রোববার রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় জামাল উদ্দিন গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে ইমাকে হত্যা করেন।

সোমবার পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার ও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী জামাল উদ্দিনকে আটক করে। এ ঘটনায় নিহত ইমা বেগমের বাবা ইসলাম উদ্দিন আটক জামাতাকে প্রধান আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত