ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ আপডেট : ২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ৩০ অক্টোবর ২০১৯, ২৩:২৯

প্রিন্ট

প্রতিবেশীর খাটের নিচে শিশুর বস্তাবন্দী লাশ

প্রতিবেশীর খাটের নিচে শিশুর বস্তাবন্দী লাশ
ফাইল ফটো
বগুড়া প্রতিনিধি

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় প্রতিবেশীর বাড়ির খাটের নিচ থেকে শিশু আশিক হাসানের (৮) হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দী লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যা সাতটায় লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় প্রতিবেশী মো. সুরুজ্জামানসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটকরা হলেন সুরুজ্জামান (৬০), তার স্ত্রী পারভীন বেগম (৫০) এবং তাদের দুই ছেলে। নিহত আশিক উপজেলার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর যমুনাপাড়া গ্রামের মঞ্জুরুল ইসলামের ছেলে।

নিহত শিশুর চাচা রঞ্জু আলম বলেন, আশিক স্থানীয় একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র ছিল। আজ বেলা তিনটার দিকে খেলার জন্য বাড়ি থেকে বের হয় সে। সন্ধ্যা হয়ে গেলেও বাড়ি না ফেরায় আশিককে খুঁজতে শুরু করে সবাই। পরে গ্রামেরই অন্য এক শিশু জানায়, আশিককে সুরুজ্জামানের ছোট ছেলে তাদের বাড়িতে নিয়ে গেছে। এরপর সুরুজ্জামানের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, খাটের নিচে রাখা একটি চটের বস্তা থেকে রক্ত পড়ছে। পরে তারা শেরপুর থানায় খবর দেন।

নিহত আশিকের বাবা মনজুরুল ইসলাম বলেন, প্রতিবেশী সুরুজ্জামানের সঙ্গে তাদের কোনো বিবাদ নেই। কে বা কারা আশিককে হত্যা করে লাশ বস্তায় রেখে দিয়েছে, তা তিনি বুঝতে পারছেন না।

শেরপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এস এম আবদুল গফুর বলেন, চটের বস্তার মধ্যে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় আশিককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। আশিকের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। রক্তক্ষরণও হয়েছে। সুরুজ্জামানসহ পরিবারের চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম বলেন, শিশু আশিকের লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। আটক ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত