ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ৫৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১০ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৩৯

প্রিন্ট

‘বুলবুল’ আতঙ্কের মধ্যে এলো বুলবুলি

‘বুলবুল’ আতঙ্কের মধ্যে এলো বুলবুলি
পটুয়াখালী প্রতিনিধি

দুর্যোগেরই মধ্যে কলাপাড়ার নীলগঞ্জ আবাসনে জন্ম হয়েছে এক কন্যা শিশুর। দুর্যোগের মধ্যে জন্ম হওয়ায় সাইক্লোনের নাম অনুসারে ওই বাচ্চাটির নাম রাখা হয়েছে বুলবুলি।

শনিবার দুপুরে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার নীলগঞ্জ ইউনিয়নের আবাসনে মা হুমায়রা বেগমের কোল জুড়ে এসেছে ফুটফুটে এ কন্যা সন্তান। মা ও নবজাতক ভালো আছে। তারা কলাপাড়া পৌর শহরের মংগলসুখ সড়ক এলাকার এক শিক্ষকের বাড়িতে আশ্রয়ে আছেন।

বুলবুলির বাবা আবুল কালাম পেশায় একজন ডেকোরেটর শ্রমিক।

তিনি বলেন, আমরা গরিব মানুষ। দিন আনি দিন খাই। মোর কষ্টের মধ্যেও আইজগো বইন্যার দিন মাইয়াডার জন্মের খবরে খুব খুশি হইছি। মাইয়াডার লাইগ্যা সবাই দোয়া করবেন।

নীলগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহেলা পারভীন বলেন, আবাসনে এক মা কন্যা সন্তান প্রসবের খবর পেয়েই সেখানে ছুটে যাই। গিয়ে দেখি আবাসনের ভাঙা ঘর। নেই তেমন সুব্যবস্থা। দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ঘরটি আরো নড়বড়ে হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় মা-মেয়ের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে তাদের নিজ বাড়িতে এনে আশ্রয় দিয়েছি।

তিনি বলেন, ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এ উপকূলের ওপর দিয়ে বয়ে যাবে বলে শোনা যাচ্ছে। সে কারণে ঝড়ের সঙ্গে মিল রেখে ওর মায়ের সঙ্গে আলাপ করে নামটি রাখি।

নীলগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড নাসির উদ্দীন মাহমুদ জানান, নীলগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শায়লা শহিদ আবাসনে জন্ম নেয়া কন্যা শিশুর নাম রেখেছেন বুলবুলি আক্তার বন্যা।

১ নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য প্রফুল্ল কুমার হাওলাদার জানান, নীলগঞ্জ আবাসনে আবুল কালাম ও হুমায়রা বেগম দম্পতির বসবাস। হুমায়রা গর্ভবতী ছিলো। শনিবার দুপুর দেড়টায় আবাসনের ঘরে বসে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

এদিকে শনিবার বিকেল পর্যন্ত পটুয়াখালীর দুর্গম এলাকার ৬৮৯টি আশ্রয় কেন্দ্রে মোট ৪ লাখ ৫৯ হাজার ৮৬৭ মানুষ আশ্রয় নিয়েছে।

উপকূলে আছড়ে পড়ার অপেক্ষায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। হয়েছে তার তাণ্ডবলীলা। ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতও আসন্ন।

বাংলাদেশ জার্নাল/জেডআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত