ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২০, ৪ মাঘ ১৪২৭ আপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:৫৪

প্রিন্ট

‘খালেদার অনুমতি ছাড়া উন্নত চিকিৎসা সম্ভব না’

‘খালেদার অনুমতি ছাড়া উন্নত চিকিৎসা সম্ভব না’

জার্নাল ডেস্ক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অনুমতি ছাড়া তাকে উন্নত চিকিৎসা করা সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। বৃহস্পতিবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলার জামিন আবেদন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে খারিজের পর নিজ কার্যালয়ে এক প্রতিক্রিয়ায় অ্যাটর্নি জেনারেল এসব কথা বলেন।

মাহবুবে আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসকদের নির্দেশ দিয়েছেন তার (খালেদা জিয়া) উন্নত চিকিৎসার জন্য। তবে, এটা ওনার অনুমতি সাপেক্ষে। কিন্তু ওনার অনুমতি না হলে উন্নত চিকিৎসা করা সম্ভব হবে না।

তিনি বলেন, আগে দাখিল করা রিপোর্টগুলো এবং বুধবার যেটা দাখিল করা হয়েছে সেটাও পড়ে শুনানো হয়েছে। তাতে আমরা দেখিয়েছি, আসলে তার শারীরিক অবস্থার বিশেষ কোন অবনতি হয়নি। যে রকম ছিল, সে রকমই আছে।

সর্বশেষ রিপোর্টে খালেদার স্বাস্থ্যের বিষয়ে কী বলা আছে জানতে চাইলে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, তার দুটো হাঁটুই রিপ্লেসমেন্ট করা হয়েছে। একটা ১৯৯৭ সালে, আরেকটা ২০০২ সালে। এটা ভালো হওয়ার অবস্থায় নেই। স্বাভাবিক এতদিন পরে রিপ্লেসমেন্টের কার্যকারিতা থাকে না। সেক্ষেত্রে এটার জন্য অ্যাডভান্স (উন্নত) চিকিৎসা নিতে হয়।

তিনি আরও বলেন, কতগুলো বিশেষ ধরনের ইনজেকশন আছে, সে ইনজেকশন দেয়ার বিষয়ে তার অনুমতি না পাওয়া গেলে তা দেওয়া যাবে না। উনি (খালেদা জিয়া) অনুমতি দিচ্ছেন না। আদালত বলেছেন, উনি যদি অনুমতি দেন তাহলে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে সে ব্যবস্থা করবেন। সর্ব সম্মতিক্রমেই আজকে আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

জামিন পাওয়া না পাওয়ার বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, আমি শুনানিতে বলেছি, এর আগে একটি মামলায় ওনাকে ১০ বছর কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ মামলায় সাত বছর কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। মোট তাকে ১৭ বছর কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। কাজেই এটাকে শর্ট সেন্টেন্স বলা যাবে না। সুতরাং এখানে তিনি জামিন পেতে পারেন না।

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত