ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭ আপডেট : ১৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১০ আগস্ট ২০২০, ০৮:২৬

প্রিন্ট

হোটেলে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, প্রেমিকসহ গ্রেপ্তার ৩

হোটেলে প্রেমিকাকে গণধর্ষণ, প্রেমিকসহ গ্রেপ্তার ৩
ছবি প্রতীকী
বরিশাল প্রতিনিধি

বরিশাল নগরীর আবাসিক হোটেলে এক কলেজছাত্রীকে (১৯) গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। রোববার (৯ আগস্ট) দুপুরে এ ঘটনায় কালেজছাত্রী বাদী হয়ে তিনজনকে আসামি করে মামলা করেন।

মামলার পর অভিযান চালিয়ে তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। তারা হলেন- কলেজছাত্রীর প্রেমিক পিরোজপুরের ইন্দুরকানি উপজেলার সজল কর্মকার, তার বন্ধু মো. মিজান ও নগরীর আবাসিক হোটেল মুন ইন্টারন্যাশনালের ম্যানেজার আ. রাজ্জাক।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রহমান মুকুল বলেন, গৌরনদী সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীর সঙ্গে সজল কর্মকারের মুঠোফোনে পাঁচ বছর আগে পরিচয় হয়। এরপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সজল কর্মকার বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই ছাত্রীকে শনিবার বরিশাল নগরীতে আসতে বলেন।

শনিবার বিকেলে গৌরনদী থেকে ওই ছাত্রী বরিশালে আসেন। এরপর সজল কর্মকার তাকে নিয়ে নগরীর সিঅ্যান্ডবি রোড আবাসিক হোটেল মুন ইন্টারন্যাশনালের একটি কক্ষে ওঠেন। সেখানে আগে থেকে সজল কর্মকারের বন্ধু মিজান অবস্থান করছিলেন। এরপর সজল ও তার বন্ধু মিজান কলেজছাত্রীকে আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। ভোররাতে স্থানীয়রা কলেজছাত্রীর চিৎকার শুনে পুলিশে খবর দেয়। পরে ছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। একইসঙ্গে সজল, মিজান ও আবাসিক হোটেল মুন ইন্টারন্যাশনালের ম্যানেজার আ. রাজ্জাককে গ্রেপ্তার করা হয়।

পরিদর্শক আব্দুর রহমান মুকুল বলেন, এ ঘটনায় কলেজছাত্রী বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। মামলায় সজল ও মিজানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয়েছে। পাশাপাশি ধর্ষণে সহায়তা করায় হোটেল মুন ইন্টারন্যাশনালের ম্যানেজার আ. রাজ্জাককে মামলার আসামি করা হয়। বিকেলে তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ছাত্রীকে বরিশাল শের-ই-মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত