ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮ আপডেট : কিছুক্ষণ আগে

জামালপুরে মা-মেয়ে খুনের রহস্য কী!

  জামালপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ : ০৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:১৭  
আপডেট :
 ০৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:২৮

জামালপুরে মা-মেয়ে খুনের রহস্য কী!
জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুরের মেলান্দহে মা মেয়েকে গলাকেটে হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটন করতে পারছে না পুলিশ। তিন দিন পেরিয়ে গেলেও বর্বরোচিত ওই হত্যাকাণ্ডের ক্লু খোঁজে পায়নি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে একাধিক বিষয় সামনে রেখে তারা তদন্ত করছে।

ঘটনার রাতেই আটক নিহত জয়ফুল বেগমের ছেলে জহুরুল চৌধুরী ও পুত্রবধূ জেসমিন আক্তারকে দুইদিন থানা হাজতে আটক রেখে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে মামলার আসামি হিসেবে গ্রেপ্তার দেখিয়ে সোমবার সন্ধ্যায় আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

জিজ্ঞাসাবাদে তাদের কাছে হত্যাকাণ্ড বিষয়ে কী তথ্য পাওয়া গেছে প্রশ্ন করা হলে তদন্তের স্বার্থে মুখ খুলতে রাজি হননি মেলান্দহ থানার ওসি মাঈদুল ইসলাম। তবে তিনি বলেছেন, তাদের কাছে পাওয়া তথ্য যাচাই বাছাই করা হচ্ছে। আমরা এই মামলাটি গুরুত্ব সহকারে নিয়েছি। একাধিক বিষয় সামনে রেখে পুলিশের একাধিক টিম তদন্ত কাজে মাঠে রয়েছে।

স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, নিহত জয়ফুল বেগম ও তার মেয়ে স্বপ্নার সাথে ছেলে জহুরুল চৌধুরী ও তার স্ত্রী জেসমিন আক্তারের প্রায়ই ঝগড়া ফ্যাসাদ লেগে খাকতো। ঘটনার আগের দিন ২৯ ডিসেম্বর তাদের সাথে ঝগড়ার এক পর্যায়ে উঠানের মাঝে বাঁশের বেড়া দেয়। সেদিনই বউ নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায় জহুরুল।

এ ঘটনার পর থেকে বাড়িতে ঝগড়ার খবর পেয়ে ওমানে টেনশনে থাকা জয়ফুল বেগমের দুই ছেলে মিলন চৌধুরী ও মিস্টার চৌধুরী বাড়ির খোঁজ খবর নিতে মা ও বোনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাদের ফোনে পাচ্ছিলেন না। দুইদিন চেষ্টার পর তাদের মামা মানিক মিয়াকে বিষয়টি জানিয়ে বাড়িতে খোঁজ নিতে বলেন। মানিক মিয়া বাড়িতে গিয়ে দেখেন ঘরের সামনের দরজা তালাবদ্ধ ও পেছনের দরজা রশি দিয়ে বাঁধা। ঘরের একরুমে জয়ফুল বেগম ও অন্য রুমে স্বপ্নার গলা কাটা রক্তাক্ত লাশ পড়ে আছে। সেদিক বিবেচনায় তার ছেলে ও ছেলের বউ পারিবারিক কলহের আক্রোশে হত্যার ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে আশপাশের লোকজন জানিয়েছে।

আবার কেউ কেউ বলছে তাদের পারিবারিক কলহের সুযোগে তৃতীয় পক্ষ কেউ হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারে। চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ড নিয়ে মেলান্দহের গোবিন্দপুরের দারোয়ানপাড়া এলাকার স্থানীয়দের মুখে মুখে চলছে নানা আলোচনা।

উল্লেখ্য, জামালপুরের মেলান্দহ পৌর এলাকার গোবিন্দপুরের গাড়িয়াল পাড়া গ্রামে শনিবার রাত ৮টার দিকে নিজ বাড়ির শয়নকক্ষে জয়ফল বেগম ও পাশের কক্ষ থেকে তার মেয়ে স্বপ্না চৌধুরীর গলাকাটা মৃতদেহ উদ্ধার করে মেলান্দহ থানা পুলিশ। রাতেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত জয়ফল বেগমের ছেলে জহুরুল চৌধুরী ও পুত্রবধূ জেসমিন আক্তারকে আটক করা হয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত