ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ৭ কার্তিক ১৪২৬ আপডেট : ২০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:২৯

প্রিন্ট

দুদুর বাড়িতে ছাত্রলীগের হামলা

দুদুর বাড়িতে ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ
ছবি প্রতিনিধি
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও জাতীয়তাবাদী কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদুর চুয়াডাঙ্গার বাসায় ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ করা হয়েছে।

শামসুজ্জামান দুদুর ছোট ভাই জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট ওয়াহেদুজ্জামান বুলা এ অভিযোগ করেন।

তিনি জানান, বুধবার চুয়াডাঙ্গা সদর আসনের এমপি সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দারের সমর্থিত লোকজনেরা মিছিল সহকারে এসে বাড়িতে ঢুকে আসবাবপত্র ভাঙচুর করে এবং হামলা চালায়।

তিনি আরও জানান, এর কিছুক্ষণ পর চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র মো. ওবায়দুর রহমান চৌধুরীর সমর্থিত নেতা-কর্মীরা আমাদের বাড়িতে ভাঙচুর চালায়।

এদিকে, ডিবিসি টেলিভিশনে এক টকশোতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করার প্রতিবাদে শামসুজ্জামান দুদুকে নিজ এলাকায় অবাঞ্চিত ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে, দুদুর বিরুদ্ধে চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রলীগ বিক্ষোভ মিছিল ও কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে। এছাড়া, বিভিন্ন সংগঠন শামসুজ্জামান দুদুর গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছে।

মিছিল চলাকালে শহরের সরকারি বালিকা বিদ্যালয় এলাকায় দুদুর পৈত্রিক বাড়িতে হামলা চালায় একদল যুবক। ভাঙচুর করা হয় বাড়ির বেশ কিছু আসবাবপত্র। বুধবার রাত ৯টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনার পরপরই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কানাই লাল সরকার। তিনি সেই সময় হামলার শিকার শামসুজ্জামান দুদুর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, ‘খবর পাওয়ার পরই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছায়। যারা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে আমরা অনুসন্ধান করছি কারা এর সাথে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

হামলার বিষয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর ব্যাক্তিগত ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বুধবার রাত ৯টার দিকে ছাত্রলীগের একটি অংশ শহরের কবরী রোডের আওয়ামী লীগ কার্যালয় থেকে একটি মিছিল বের করে। মিছিলে নেতৃত্ব দেন জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক। মিছিলটি শহরের শহীদ হাসান চত্বরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।

একই দাবিতে রাত ৯টার পরপরই ছাত্রলীগের অপর একটি পক্ষ মিছিলসহ শহরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এর নেতৃত্ব দেন জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জানিফ। দুটি মিছিল থেকেই শামসুজ্জামান দুদুর গ্রেপ্তার দাবি করা হয়।

প্রসঙ্গত, গত সোমবার রাতে বেসরকারি টেলিভিশন ডিবিসি নিউজের রাজকাহন টকশোতে অংশগ্রহণ করেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু। সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকেও বঙ্গবন্ধুর মত পরিণতি ভোগ করতে হবে বলে হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

বাংলাদেশ জার্নাল/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত