ঢাকা, শনিবার, ০৬ জুন ২০২০, ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ আপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২১ মার্চ ২০২০, ১১:৩১

প্রিন্ট

নির্বাচনে মহিউদ্দিনের রিকশা সার্ভিস!

নির্বাচনে মহিউদ্দিনের রিকশা সার্ভিস!

Evaly

নিজস্ব প্রতিবেদক

ছোঁয়াচে প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনার জন্য থমকে গেছে গোটা বিশ্ব। কিন্তু ভয়াবহ এ পরিস্থিতির মধ্যেই ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩, বাগেরহাট-৪ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত একটানা চলবে ভোট।

আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসেবে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে লড়ার জন্য ঢাকা ১০ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ফজলে নূর তাপস পদত্যাগ করলে এই আসনটি শূন্য হয়।

এবার উপ-নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থী শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। তার পক্ষ থেকে ভোটারদের কেন্দ্রে নিতে এক অভিনব সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আর সেটি হল রিকশা সার্ভিস। ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সুবিধার্তে মহিউদ্দিনের পক্ষ থেকে ঢাকা ১০ আসনের প্রতিটি কেন্দ্রের জন্য প্রায় ৩০টি রিকশা ভাড়া করা হয়েছে।

সরেজমিনে রাজধানীর বাটা সিগন্যাল এলাকায় দেখা যায়, ভোটারদের কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় বসে আছেন কিছু রিকশা চালক। মোহাম্মদ খাজা নামে এক রিকশা চালক বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, ‘ভোট শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত আমি একজন ভোটারকে কেন্দ্রে পৌঁছে দিয়েছি। এখন অন্য ভোটারের জন্য অপেক্ষা করছি।’

পুরাতন এলিফ্যান্ট রোডে ভোটারের অপেক্ষায় রিকশা নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন তৈয়ব আলী। তার পাশেই ছিলেন আরেকজন রিকশা চালক মফিজ মিয়া। তৈয়ব আলী বলেন, এখন পর্যন্ত দুইজন ভোটারকে ঢাকা কলেজের সামনে নামিয়ে দিয়ে এসেছি। আর মফিজ দুইজন ভোটারকে কেন্দ্রে নিয়ে গিয়েছিলেন।

কোন কেন্দ্রের জন্য আপনাদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তৈয়ব আলী বলেন, ‘নৌকার প্রার্থী আমাদের ১০ জনকে ঢাকা কলেজ ভোট কেন্দ্রের দায়িত্ব দিয়েছেন। আমরা এলিফ্যান্ট রোড, বাটা সিগন্যাল মোড়ে চারজন আছি।’

প্রতিটি কেন্দ্রে কতগুলো রিকশা দেয়া হয়েছে জানতে চাইলে তৈয়ব বলেন, ‘এ ব্যাপারে সঠিক সংখ্যাতো আমি বলতে পারবো না। তবে শুনেছি প্রত্যেক কেন্দ্রে ৩০টি করে রিকশা ভাড়া করা হয়েছে।’

ঢাকা-১০ আসন

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ১৪, ১৫, ১৬, ১৭, ১৮ ও ২২ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে এ সংসদীয় আসন গঠিত। এই আসনের মোট ভোটার তিন লাখ ১২ হাজার ২৮১ জন। নির্বাচনে মোট ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ১১৭টি এবং ভোটকক্ষের সংখ্যা ৭৭৬। এই নির্বাচনে ৬ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

তারা হলেন- আওয়ামী লীগ থেকে মো. শফিউল ইসলাম, বিএনপির শেখ রবিউল আলম, জাতীয় পার্টির হাজী মো. শাহজাহান, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের কাজী মুহাম্মদ আবদুর রহিম, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের নবাব খাজা আলী হাসান আসকারী এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের মো. মিজানুর রহমান।

বাংলাদেশ জার্নাল/টিও/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত