ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ৭ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ৪২ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৪৩

প্রিন্ট

রাজধানীতে আবাসিক হোটেল থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীতে আবাসিক হোটেল থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার
নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর কমলাপুর এলাকার ইনসাফ আবাসিক হোটেল থেকে ইয়াসমিন আক্তার সোমা (৩২) নামে এক গৃহবধূর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার বিকেলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) মর্গে এসে লাশ শনাক্ত করেন নিহতের ভাই আলাউদ্দিন ফরাজি।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল জলিল। তিনি বলেন, খবর পেয়ে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় হোটেলটির ২২৭ নম্বর কক্ষ থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়।

এসআই আব্দুল জলিল আরো বলেন, তার গলায় ওড়না পেঁচানো ছিল। গলায় কালো দাগ ছিল। পরে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেলে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পরই মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। নিহত নারীর স্বামীকে আটক করার চেষ্টা চলছে।

হোটেল কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে এসআই আব্দুল জলিল বলেন, আবুল কালাম তার ছেলেকে নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর ওই হোটেলের ২৩৪ নম্বর কক্ষে উঠেন। হোটেল কর্তৃপক্ষকে জানান, তার স্ত্রী রাগ করে কোথায় যেন চলে গেছে। তাকে খুঁজতে এসেছেন তারা। পরবর্তীতে স্ত্রীর খোঁজ পেয়েছে বলে রুম বদল করে ২২৭ নম্বর রুমে উঠেন। পরে স্ত্রী সোমা এলে কোনও এক সময় স্বামী তার সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যায়। শনিবার (১৭ অক্টোবর) সন্ধ্যায়, হোটেল বয় তাদের রুম পরিষ্কারের জন্য গিয়ে দেখে দরজা খোলা খাটের ওপর অচেতন অবস্থায় পড়ে আছেন ওই নারী। বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানালে তারা পুলিশকে অবহিত করে।

নিহতের ভাই আলাউদ্দিন ফরাজি জানান, ইয়াসমিনের স্বামীর নাম আবুল কালাম। তাদের সাফায়েত (১০) নামে এক সন্তান রয়েছে। তারা রাজধানীর নারিন্দা এলাকায় থাকতো। ছয়-সাত মাস আগে আবুল কালামের সঙ্গে বাসার গৃহকর্মীর অনৈতিক সম্পর্ক দেখে ফেলে সোমা। এ নিয়ে তাদের মধ্যে তিক্ততা সৃষ্টি হয়। পরে স্বামী তার সন্তানকে নিয়ে অন্যত্র চলে যায়। এ ঘটনার বেশ কয়েকদিন পর সোমা সাভারে বোন নাসরিনের বাসায় গিয়ে উঠেন। মাঝে মধ্যে ঢাকায় আসতো।

আলাউদ্দিন ফরাজি আরো বলেন, গত শুক্রবার সকালে কাপড় আনার কথা বলে সাভার থেকে ঢাকায় আসে সোমা। সন্ধ্যার পর থেকে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। তাকে আর পাওয়া যায়নি।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএস/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত