ঢাকা, শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ আপডেট : ১৪ মিনিট আগে
শিরোনাম

স্বর্ণ কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে বিষয়গুলো

  জার্নাল ডেস্ক

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০২৩, ২০:৫৬

স্বর্ণ কেনার সময় খেয়াল রাখতে হবে যে বিষয়গুলো
প্রতীকী ছবি

স্বর্ণে বিনিয়োগ সবসময়ই লাভজনক। বিশেষ করে অর্থনৈতিক অস্থিরতার সময়। তবে প্রথমবার এতে অর্থ খাটাতে অনেকে ভয় পান। কারণ, লোকসানের ব্যাপক আশঙ্কা থাকে। কেননা, স্বর্ণ খাঁটি না হলে ঠকতে পারেন তারা।

ফলে স্বর্ণ ব্যবসার শুরুতে বেশ সতর্ক থাকতে হয়। মার্কিন গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মোটা দাগে ৫টি বিষয় মাথায় রাখলে এ আতঙ্ক থেকে মুক্ত থাকতে পারেন তারা। সেগুলো হলো-

১. ডিলারের সুনাম

স্বর্ণ কেনার সময় খ্যাতনামা ডিলার বেছে নেয়া গুরুত্বপূর্ণ। বাজারে নকল স্বর্ণের অভাব নেই। তাই যাচাই-বাছাই করে এবং শুধু বিশ্বস্ত বিক্রেতাদের কাছ থেকে মূল্যবান ধাতুটি কেনা অপরিহার্য। এক্ষেত্রে ডিলারের ব্যাকগ্রাউন্ড জানা দরকার। পাশাপাশি তার কাছ থেকে অতীতে কেনা ক্রেতাদের মতামত নেয়া প্রয়োজন।

২. বিশুদ্ধতা

ক্যারেটে স্বর্ণের বিশুদ্ধতা পরিমাপ করা হয়। অলঙ্কারের জন্য কেনার ক্ষেত্রে ২৪ ক্যারেট হচ্ছে সর্বোচ্চ বিশুদ্ধতার স্তর। আর বিনিয়োগ-গ্রেড স্বর্ণের বিশুদ্ধতা হচ্ছে ৯৯ দশমিক ৯৯ শতাংশ। কিছু স্বর্ণ অন্যান্য ধাতুর সঙ্গে মিশ্রিত হতে পারে। এতে নিরাপদ আশ্রয় ধাতুটি অধিক টেকসই হয়। গহনার জন্য তা দরকারি। কিন্তু বিনিয়োগের ক্ষেত্রে গুরুত্ব কমে যায়। সুতরাং, স্বর্ণ কিনতে বিশুদ্ধতা পরীক্ষা করতে ভুলবেন না।

৩. ওজন

স্বর্ণের বার ও কয়েন বিভিন্ন আকার এবং ওজনের হয়। গুরুত্বপূর্ণ ধাতুটির দামকে যা প্রভাবিত করে। বার মূলত ট্রয় আউন্সে পরিমাপ করা হয়। একটি সম্পূর্ণ স্বর্ণের বার সাধারণত ৪০০ ট্রয় আউন্সের হয়। আর কয়েন ১ ট্রয় আউন্স, ১/২ ট্রয় আউন্স, ১/৪ ট্রয় আউন্স এবং ১/১০ ট্রয় আউন্স ওজনের হয়। দুঃসময়ের বন্ধু ধাতুটি ক্রয়ের সময় অবশ্যই সেসব মাথায় রাখতে হবে।

৪. প্রাকৃতিক

খাঁটি স্বর্ণের ওপর খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানের হলমার্ক বা স্ট্যাম্প থাকে। ইউএস মিন্ট, রয়্যাল কানাডিয়ান মিন্ট বা পার্থ মিন্ট সরাসরি খনি থেকে স্বর্ণ উত্তোলন করে। পরে নিজস্ব টাকশালে বিভিন্ন আকার দেয়। অতপর প্রক্রিয়াজাত করে। স্বর্ণ কেনার সময় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। প্রয়োজনে চুম্বক টেস্ট করে নিতে হবে।

৫. প্রিমিয়াম

স্বর্ণের স্পট মূল্যে অবশ্যই প্রিমিয়াম থাকবে। কিছু ছাড়ও থাকে। প্রকৃত স্বর্ণ প্যাকেটজাত হয় এবং তাতে উৎপাদনের তারিখ লেখা থাকে। ফলে কেনার সময় এসব ক্ষেত্রেও লক্ষ্য রাখতে হয়। পাশাপাশি সামনে বাজার কেমন থাকবে-তাও মাথায় রাখতে হবে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এএ/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত