ঢাকা, বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ আপডেট : ১ মিনিট আগে

জবিতে মানবিক বিভাগের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

  জবি প্রতিনিধি

প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮:২৭

জবিতে মানবিক বিভাগের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত
ছবি: প্রতিনিধি
জবি প্রতিনিধি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং এর আওতাধীন পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্রে ‘বি’ ইউনিটের (মানবিক) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোট ৭ হাজার ৩০৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন।

রোববার সকাল ১০টা থেকে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি ফটক ও পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুলের ১টি ফটকসহ মোট ৫টি ফটক দিয়ে শিক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করানো হয়। পরীক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে মূল ফটকসহ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গায় কর্তব্যরত নিরাপত্তাকর্মী ও স্বেচ্ছাসেবকগণ স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করেন।

দুপুর ১২টায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ও এর আওতাভুক্ত পোগোজ ল্যাবরেটরি স্কুল কেন্দ্রে ‘বি’ ইউনিটের (মানবিক) গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে সন্তানের পরীক্ষা শুরু হয়ে গিয়েছে, আর বাইরে বসে মা দোয়া করছেন এমন দৃশ্য চোখে পড়ে। পরীক্ষা কেন্দ্রের বাহিরে জেলাভিত্তিক ছাত্রকল্যাণ পরিষদ, বিভিন্ন ধর্মীয় ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী সেচ্ছাসেবকদের পরীক্ষার্থীদের মোবাইল-ঘড়িসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সংরক্ষণের দায়িত্ব নিতে দেখা যায়।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. ইমদাদুল হক পরীক্ষার হল পরিদর্শন করেন। এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়কারী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সরকার আলী আক্কাস, প্রক্টর ড. মোস্তফা কামালসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়কারী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সরকার আলী আক্কাস বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে সুন্দর ও শান্তিপূর্ণভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই কেন্দ্রে মোট ৭ হাজার ৭৯৩ জন ভর্তি পরীক্ষার্থীর আসন ছিল। এর মধ্যে ৭ হাজার ৩০৪ জন শিক্ষার্থী উপস্থিত হয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন।

তিনি আরও বলেন, যেসব শিক্ষার্থী দেরিতে কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে তাদের পরীক্ষা গ্রহণ করে ও এমআর আলাদা করে রাখা হয়েছে। আমরা সেগুলো পরীক্ষা করে দেখবো কোনো সমস্যা আছে কিনা। যেহেতু দেরিতে এসেছে অসদুপায় অবলম্বনের একটা সম্ভাবনা থেকে যায়। তাই আগে আমরা সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবো।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন অধ্যাপক ড. সরকার আলী আক্কাস। তিনি বলেন, একজন দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ভর্তি পরিক্ষার্থী ছিল। বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে তার পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তার সাথে একজন শ্রুতি লেখকও ছিলেন।

উল্লেখ্য, দেশের মোট ২২টি কেন্দ্রে একযোগে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গুচ্ছভুক্ত ভর্তি পরীক্ষায় বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগ মোট তিনটি ইউনিট রয়েছে। আসন রয়েছে মোট ২২ হাজার ১৩টি। এর বিপরীতে আবেদন করেছিলেন দুই লাখ ৩২ হাজার ৪৫৫ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ‘বি’ ইউনিটে মোট পরীক্ষার্থী ছিলেন ৬৭ হাজার ১১৭ জন।

এর আগে ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত ‘এ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে ১১ হাজার শিক্ষার্থীর পরীক্ষার আসন পড়ে। ওইদিন প্রায় ৯৩ শতাংশ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। ২০ অক্টোবর বিকেল ৫টার দিকে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে ‘এ’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ করা হয়।

গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয় হলো- জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয় এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত