ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২২, ৪ মাঘ ১৪২৮ আপডেট : ৫১ মিনিট আগে

শাবিতে আন্দোলনের মাঝেই দায়িত্বে নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট

  সিলেট প্রতিনিধি

প্রকাশ : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২১:১৪  
আপডেট :
 ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২১:১৮

শাবিতে আন্দোলনের মাঝেই দায়িত্বে নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট
ছবি- প্রতিনিধি
সিলেট প্রতিনিধি

শাবিপ্রবির বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী ছাত্রী হলের প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজার পদত্যাগসহ তিনদফা দাবিতে চলমান ছাত্রী আন্দোলনের মাঝেই নতুন ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জোবেদা কনক খান।

শুক্রবার সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

উপাচার্য বলেন, বর্তমান প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজা করোনা পজিটিভ হওয়ার কারণে ছুটিতে থাকায় ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট হিসেবে সহযোগী অধ্যাপক জোবেদা কনক খানকে এই দায়িত্ব দেয়া হয়।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) দিবাগত রাত থেকেই বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী ছাত্রী হলের প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজার পদত্যাগসহ তিনদফা দাবিতে বিক্ষোভ ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) আবাসিক ছাত্রীরা। মধ্যরাতে শাবিপ্রবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বিষয়টি দেখে দেয়ার আশ্বাস দিলে আজ দুপুর ১২টার মধ্যে দাবি মেনে নেয়ার সময়সীমা বেধে দিয়ে হলে ফিরে যান।

এর অংশ হিসেবে শুক্রবার দুপুর ১২টা থেকে উপাচার্য কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে তারা ফের বিক্ষোভ শুরু করেন। এ অবস্থায় বিকাল চারটার দিকে প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদ লিজার অফিসে তালা ও ২৪ ঘণ্টার আল্টমেটাম দিয়ে ছাত্রীরা তাদের কর্মসূচি স্থগিত করেন।

এর মাঝেই আসে আজ শুক্রবার সন্ধ্যার পর জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড বায়োটেকনোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জোবেদা কনক খানকে ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্ট হিসেবে দায়িত্ব দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এদিকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হচ্ছে- প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদ লিজাও সহকারী প্রাধ্যক্ষদের পদত্যাগ, হলের যাবতীয় অব্যস্থপনা নির্মূল করা এবং হলের স্বাভাবিক সুস্থ পরিবেশ নিশ্চিত করা, অবিলম্বে ছাত্রীবান্ধব এবং দায়িত্বশীল প্রাধ্যক্ষ কমিটি নিয়োগ দেয়া।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, আগে থেকেই হল কর্তৃপক্ষের কাছে ডাবলিং নিষিদ্ধ করা, গণরুম না রাখা, অভিভাবকদের প্রবেশের অনুমতি দেয়া, খাবারের মান উন্নত করাসহ বেশকিছু দাবি উত্থাপন করে আসছিলেন হলের শিক্ষার্থীরা। বৃহস্পতিবার হল প্রভোস্ট জাফরিন আহমেদকে দাবির বিষয়ে ফোন দিলে তিনি শিক্ষার্থীদের হল থেকে বেরিয়ে যেতে বলেন। এরপর প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবিতে আন্দোলনে নামেন ছাত্রীরা।

এ বিষয়ে উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমদ জানান, শিক্ষার্থীদের সমস্যা ও দাবিদাওয়া নিয়ে বৈঠক হয়েছে। তাদের দাবি পূরণের আশ্বাসও দেয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রাধ্যক্ষের কক্ষে তালা দিয়ে শাবি ছাত্রীদের আল্টিমেটাম

বাংলাদেশ জার্নাল/এসকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত