ঢাকা, শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯:৪২

প্রিন্ট

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদনে হট্টগোল

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদনে হট্টগোল
ইবিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদনে হট্টগোল

ইবি প্রতিনিধি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস পালনের সময় শহীদ বেদীতে হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ক্যাম্পাসস্থ স্মৃতিসৌধে এই ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ‘অফিসার্স এসোসিয়েশন’ নামে কর্মকর্তাদের একাংশের সংগঠনের নাম মাইকে ঘোষণার পর, শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করতে গেলে তাদের ‘অনির্বাচিত’ আখ্যা দিয়ে হট্টগোল শুরু করেন কয়েকজন কর্মকর্তা। এ সময় উকিল উদ্দিন, পিন্টু লাল দত্ত, সেলিম, মুকুটসহ কয়েকজনকে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় করেন। পরে সিনিয়র নেতারা তাদের নিভৃত করেন।

এদিকে, শহীদ বেদীতে এমন হট্টগোল দেখে উপস্থিত সচেতন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তারা বলেন, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের শ্রদ্ধা জানাতে এসে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে এমন শোরগোল তাদের স্মৃতির অসম্মানেরই নামান্তর। এমনকি কোনোভাবেই কাম্য নয়।

শহীদ বেদী ত্যাগের সময় উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তারা। বিজয় দিবসে পুষ্পস্তবক অর্পণের সময় এ ধরনের অনির্বাচিতদের নাম পুনরায় ঘোষণা করলে তা প্রতিহত করার কঠোর হুশিয়ারি দেন তারা।

এ বিষয়ে ইবি’র শাপলা ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের বেদীতে এমন হট্টগোলের ঘটনা অত্যন্ত ন্যক্কারজনক। এতে আমরা অত্যন্ত মর্মাহত। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই। আমি মনে করি, আজকের এই আয়োজনের সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ভূমিকা রাখলে এরকম বিশৃঙ্খল ঘটনা ঘটতো না।

উপ-উপাচার্য অধ্যাপক শাহিনুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের মত সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠে সবার কাছ থেকে আমরা সৌহার্দ্যপূর্ণ ও সহিষ্ণু আচরণ প্রত্যাশা করি। যেকোনো অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে অসহিষ্ণু ও অসৌজন্যমূলক আচরণ কাম্য নয়। আমরা যেন সকলে মিলে সহমর্মীতা ও সহকর্মীসুলভ আচরণ নিশ্চিত করতে পারি সে লক্ষেই কাজ করে যাচ্ছি। বিষয়টি আমরা আলোচনা করে দেখবো।

প্রসঙ্গত, ‘মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব’ ম্যুরালে মোমবাতি প্রজ্বলন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। পরে সকাল সাড়ে ১০টায় স্মৃতিসৌধে শহীদ বুদ্ধিজীবীদের উদ্দেশ্যে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক শাহিনুর রহমান। এ সময় ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এসএম আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।

পরে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, শাপলা ফোরাম, জিয়া পরিষদ, সাদা দল, কর্মকর্তা সমিতি, অফিসার্স এসোসিয়েশন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ অফিসার ইউনিট, অস্থায়ী কর্মচারী পরিষদ, শাখা ছাত্রলীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, ছাত্র মৈত্রী, বিভিন্ন বিভাগ ও হলসমূহ শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল/এনকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত