ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭ আপডেট : ১৫ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২০, ০০:২৩

প্রিন্ট

‘‌দেশে কুকুর নিধনের চেয়ে ধর্ষক নিধন জরুরি’

‘‌দেশে কুকুর নিধনের চেয়ে ধর্ষক নিধন জরুরি’
জার্নাল ডেস্ক

ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে প্রতিবাদ ও মানববন্ধন করেছেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীরা। ২৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসের ডাইভারসিটি প্লাজায় এই সভার আয়োজন করে নিউইয়র্কের ক্ষুব্ধ সচেতন প্রবাসীরা।

এসময় দেশে কুকুর নিধনের চেয়ে ধর্ষক নিধন জরুরি বলে জানান লেখক আসলাম আহমাদ খান।

আরো পড়ুন: পরিবার হাসপাতালে, একা পেয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

সভার সমন্বয়কারী তোফাজ্জল লিটন এর সঞ্চালনায় বক্তাগণ বলেন, ‘ধর্ষণের বিচার না হওয়ায় বাংলাদেশে ধর্ষণের ঘটনা বেড়ে যাচ্ছে। তাই ধর্ষণের এমন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিবে হবে যেনো কেউ ধর্ষণের সাহস না পায়। প্রত্যেকে নিজের জায়গা থেকে প্রতিবাদ সমাবেশ না করতে পারলেও যেনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ অব্যাহত রাখতে হবে। মনোভাবের এবং অপরাধীদের প্রতিহত করতে আহ্বান জানান বক্তারা।

আরো পড়ুন: অপ্রতিরোধ্য ধর্ষণ, উত্তরণের উপায় কী

সাপ্তাহিক পরিচয় পত্রিকার সংবাদিক নাজমুল আহসান তার বক্তব্যে বলেন, যারা দৃষ্টি দিয়ে, গালাগাল করে এবং অশালীন অঙ্গভঙ্গী করে নারীদের মানসিক ভাবে ধর্ষণ করে তাদের বিরুদ্ধেও প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। সব দেশেই ধর্ষণ হয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর এমন বক্তব্য অপরাধীদের উৎসাহিত করতে পারে।

আরো পড়ুন: স্বামীর সামনেই স্ত্রীকে ধর্ষণ করল ছাত্রলীগের কর্মীরা

নাগরিক আন্দোলনের একটিভিস্ট মুজাহিদ আনসারি বলেন, যারা ইনিয়ে বিনিয়ে ধর্ষকদের সমর্থনে কথা বলে, পোশাকে দায়ী করে ধর্ষকদের বাঁচাতে চায় তাদের বিরুদ্ধেও সোচ্চার হতে হবে। বাংলাদেশের প্রত্যেকটি ধর্ষণ ঘটনার সুষ্ঠূ ও সর্বোচ্চ বিচার দাবি করছি আমরা।

আরো পড়ুন: চলন্ত ট্রেনে তরুণীকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত আটক

সাংবাদিক ও গীতিকার দর্পণ কবীর বলেন, এই বৈরী আবহওয়ায় আমরা এখানে ২৫/৩০ জন উপস্থিত হলেও আমি মনে করি এখানে পুরো বাংলাদেশ। সব বিষয়ে কেনো প্রধানমন্ত্রীকেই হস্তক্ষেপ করতে হবে ? অন্যান্য মন্ত্রী এমপি কী করেন ? অপরাধীদের সামাজিক ভাবে বয়কট করতে হবে।

আরো পড়ুন: তরুণীর জোগান দিতো বান্ধবী, ধর্ষণ করতো চান্দু

নিউইয়র্ক শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক মণিকা রায় বলেন, দেশের প্রধান মন্ত্রী এবং অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবস্থায় নারী নেত্রীরা আছেন । অথচ সারা দেশে ক্রমাগত ধর্ষণ বেড়েই চলেছে। আমি তাদের সর্বোাচ্চ শাস্তি দাবি করছি।

আরো পড়ুন: গির্জায় কিশোরীকে ধর্ষণ, ফাদার গ্রেপ্তার

লেখক ও ছড়াকার ইশতিয়াক রুপু বলেন, নিজেদের ফেসবুকের মাধ্যমে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলতে পারি আমরা প্রতি মূহূর্তে। এই অপরাধূদের সামাজিক ভাবেও মোকাবেলা করবে হবে।

আরো পড়ুন: উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা

আবৃত্তি শিল্পী কান্তা কাবির বলেন, ধর্ষণের হওয়া উচিৎ মৃর্তৃদন্ড। এদিকে লেখক আসলাম আহমাদ খান বলেন, দেশে কুকুর নিধনের চেয়ে ধর্ষক নিধন জরুরি।

বাংলাদেশ জার্নাল/ এমএম

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত