ঢাকা, শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭ আপডেট : ২০ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১৬:২৩

প্রিন্ট

লেখিকা হিসেবে জয়া’র আত্মপ্রকাশ

লেখিকা হিসেবে জয়া’র আত্মপ্রকাশ

জার্নাল ডেস্ক

লেখিকা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছেন মেহেনীল তাসনিম জয়া। প্রথমবারের মত নিজের লেখা বই নিয়ে হাজির হতে যাচ্ছেন তিনি। ছোটবেলা থেকে লেখালেখির অভ্যাস থাকায় সেটির পূর্ণতা দিতেই এই প্রয়াস। তার বইয়ের নাম ‘অন্তপুরের অন্তরালে’। ১১টি গল্পের সমন্বয়ে লেখা এই বইটির নাম প্রথমদিকে ‘এপিঠ ওপিঠ’ রাখা হয়েছিল। পরে গল্পের আলোকে সেটি পরিবর্তন করে নতুন নাম রাখা হয়।

জানা যায়, ১১টি ছোট গল্পের সমন্বয়ে লিখিত এই বইটিতে প্রেম, বিচ্ছেদ, সাহসিকতা, হাস্যরস, বাস্তব অভিজ্ঞতার বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে। প্রত্যেকটা ছোট গল্পের একটা করে নাম দেওয়া হয়েছে। যেমন- একটি অসভ্য প্রেম, নির্বাসনে যাবার পূর্বে, অন্যরকম অফিস, একটি কনডমের ইতিবৃত্ত, পতিতার প্রেম, মনের মানুষ, ভালোবাসার রাজনীতি ইত্যাদি।

বইটি প্রকাশ করছে শোভা প্রকাশনী। বইয়ের প্রচ্ছদ করেছেন ধ্রুব এষ। আসছে ডিসেম্বরেই বইটি পাওয়া যাবে দেশের যেকোন স্টলে। শুধু তাই নয়, আগামী একুশে বইমেলাতেও বইটি পাওয়া যাবে।

প্রথমবারের মত বই লিখতে পেরে অনেকটাই উচ্ছ্বসিত মেহেনীল তাসনিম জয়া। তিনি বলেন, ‘খুব ছোট বেলা থেকেই আমার লেখালেখির অভ্যাস। যখন স্কুলে পড়তাম তখন কলম আর খাতা সামনে পেলেই দুই চার লাইন কবিতা লিখে ফেলতাম। অল্প অল্প করে লেখার অভ্লেযাস থেকে একটা সময় লেখালেখির প্রতি একটা অন্যরকম ভালোবাসা জন্ম নিয়েছে। সেই ভালোবাসার জায়গা থেকেই বই লিখা শুরু করলাম।’

তিনি আরও বলেন, ‘এটা আমার প্রথম বই। কতগুলো ছোট গল্পের সমন্বয়ে বইটি লেখার চেষ্টা করেছি। আমি লেখিকা নই, তবে লেখিকা হিসেবে এটি আমার প্রথম প্রয়াস। আমি আমার সবটুকু দিয়ে বইটিকে মানসম্মত করার চেষ্টা করেছি। বই হচ্ছে আনন্দের খোরাক। আশা করছি পাঠকরা আমার বইতে সেটি অনায়াসেই পাবেন।’

বাংলাদেশ জার্নাল/ আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত