ঢাকা, বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭ আপডেট : ৮ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ২১ অক্টোবর ২০২০, ১৮:১৩

প্রিন্ট

আমার ডিকশনারিতে বিয়ে নেই: সুনেরাহ

আমার ডিকশনারিতে বিয়ে নেই: সুনেরাহ
সুনেরাহ বিনতে কামাল
ইমরুল নূর

বেহেশতীয় ফুলের নামে নিজের নাম রেখেছেন মডেল ও অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামাল। তবে এই নামটি রেখেছেন এই অভিনেত্রীর খালা। এই নামটি তার অনেক পছন্দ হওয়ায় আর নাম পাল্টাননি। অনেকেই নাকি বলে থাকেন মিডিয়াতে এসে অনেকেই নিজের নাম পালতে ফেলেন। সেদিক থেকে তিনি তা করেননি।

২০১১ সালে র‌্যাম্পের মাধ্যমে মডেলিংয়ে পথচলা শুরু করেন। এরপর কাজ করেছেন বিজ্ঞাপন ও মিউজিক ভিডিওতে। মডেলিং দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করলেও বড় পর্দায় পা রেখেই প্রশংসিত হয়েছেন। গেল বছরে স্টার সিনেপ্লেক্স প্রযোজিত ও তানিম রহমান অংশু পরিচালিত ‘ন ডরাই’ সিনেমায় একজন সার্ফারের চরিত্রে অভিনয় করে দর্শক প্রশংসা ও ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছেন।

গেল নভেম্বরে ছবিটি মুক্তি পেলেও চলতি মাসে আবারও নতুন করে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে বলে জানান এই অভিনেত্রী। জানা যায়, আগামী শুক্রবার ২৩ অক্টোবর স্টার সিনেপ্লেক্সের সবকটি শাখায় ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে।

এই বিষয়ে সুনেরাহ বলেন, সত্যি বলতে এই ছবিটার মাধ্যমে আমি নিজেকে নতুন করে চিনেছি। প্রত্যাশার চেয়েও অনেক বেশি দর্শক ও মানুষের সাপোর্ট ও ভালোবাসা পেয়েছি। দর্শকদের চাহিদার কারণে আবারও নতুন করে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে। প্রায় সাত মাস পর সিনেপ্লেক্স খুলতে যাচ্ছে। শুরুর দিন থেকেই ছবিটি চলবে আগামী ৩০ দিন। স্টার সিনেপ্লক্সের সবকটি শাখায় ছবিটি দেখা যাবে।

নিজের ব্যস্ততা সম্পর্কে তিনি বলেন, করোনার কারণে তো সব পরিকল্পনাই পাল্টে গেলো। কাজও তেমন করছি না। বলতে গেলে অফিস নিয়েই ব্যস্ত রয়েছি। আর মাঝেমধ্যে ঘুরতে বের হচ্ছি। এরমধ্যে বেশকিছু কাজের প্রস্তাব এসেছে কিন্তু পছন্দমত না হওয়ায় সম্মতি দিচ্ছি না। তবে খুব শিগগিরই জি ফাইভের একটি ওয়েব সিরিজের কাজ শুরু করতে যাচ্ছি। এছাড়াও কিছু কাজের ব্যাপারে চূড়ান্ত না হওয়া বলতে পারব না।

করোনায় অনেকেই নিজের গাঁটছড়া বেঁধেছেন। সুনেরাহ কবে সেই খবর জানাবেন? এমন প্রশ্নে নায়িকার উত্তর, আমি কখনওই বিয়ে করবো না। এসব নিয়ে আমার চিন্তা ভাবনা নেই। বিয়ে শব্দটা আমার ডিকশনারিতে নেই। আমি ছোটবেলা থেকেই খুব স্বাধীনচেতা। পরিবার আমাকে, আমার সিদ্ধান্তকে সবসময় সাপোর্ট করেছে। যেরকম আছি ভালো আছি।

তিনি আরও বলেন, আমি নিজে কিছু করতে চাই। নিজের পরিশ্রম দিয়ে কিছু অর্জন করতে চাই। নিজের পরিশ্রমের টাকায় গাড়ি, বাড়ি করতে চাই। কারও সাথে নিজের জীবন জড়ানো মানে তার সঙ্গে সবকিছু ভাগ করে নেওয়া। সেটাতে আপত্তি নেই। কিন্ত তখন একটা দায়বদ্ধতা তৈরি হয়। দেখা গেলো, আমি যেহেতু জব করি; অনেকসময় রাত করে বাসায় ফিরতে হয়। সেটা নিয়ে তার প্রশ্ন থাকবে। কিন্তু সে তো বুঝবে না যে আমি আমার জন্য কাজ করছি। কারও কাছে আমি নিজেকে বেঁধে রাখতে দিতে চাই না। আর কেউ যদি আমার সব কিছু মেনে নিয়ে আমার সঙ্গে থাকতে চায়, তাহলে আপত্তি নেই আমার।

সুনেরাহ’র শুরুটা হয়েছিল নাচ শেখার মধ্য দিয়ে। মাত্র আড়াই বছর বয়সে বুলবুল ললিতকলা একাডেমিতে (বাফা) নাচ শেখা শুরু করেন। স্কুলে থাকতে থিয়েটারেও অভিনয় করেছেন। পাশাপাশি খেলাধুলার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন তিনি। তখন বাস্কেটবল ও ভলিবল ছিল তার পছন্দের খেলা। এছাড়া তিনি বিটিভির তালিকাভুক্ত নৃত্যশিল্পী ছিলেন। সেখান থেকে এক পরিচিতজনের মাধ্যমে র‍্যাম্পে পথচলা শুরু। তখন তিনি নবম শ্রেণিতে পড়তেন। র‍্যাম্পে তার নজরকাড়া পারফরমেন্সের জন্য দেশের একটি বড় ফ্যাশন হাউজের মডেল হওয়ার জন্য ডাক পান তিনি। তবে বয়স কম হওয়ায় তখন কাজটি করতে পারেননি।

তার ভাষ্যে, ‘ফ্যাশন হাউজটি আমাকে ছোট বলে অপেক্ষা করতে বলে। তবে এ কারণে আমি একটুও হতাশ হইনি। কারণ এসব বিষয় আমাকে কখনো নিরাশ করে না। আমি যেমন, আমি তেমনই। এবার হয়নি পরের বার হবে। আর আমার জীবনের সবকিছু এভাবেই হয়েছে, সারপ্রাইজ। হঠাৎ হঠাৎ। মজার বিষয় হচ্ছে পরবর্তীতে সে প্রতিষ্ঠানেরই ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে আমি কাজ করেছি।’

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত