ঢাকা, বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮ আপডেট : ৮ মিনিট আগে

পরীমনিকে ধর্ষণ-হত্যা চেষ্টার হোতা নাসির অল কমিউনিটি ক্লাবেরও সদস্য

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৭ জুন ২০২১, ১৯:৩২

পরীমনিকে ধর্ষণ-হত্যা চেষ্টার হোতা নাসির অল কমিউনিটি ক্লাবেরও সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকাই সিনেমার নায়িকা পরীমনিকে বোট ক্লাবে ধর্ষণ-হত্যা চেষ্টার মামলার প্রধান আসামী নাসির উদ্দিন মাহমুদ গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবেরও সদস্য। রাজধানীর অভিজাত ক্লাব সোসাইটির অন্যতম এই সংগঠক উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি ছিলেন। পরীমনির মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটি থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়।

নাসির উদ্দিন মাহমুদ গ্রেপ্তার হওয়ার দুদিন পর বুধবার রাতে অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি কে এম আলমগীর ইকবাল অভিযোগ করেন, গত ৭ জুন দিনগত মধ্যরাতে পরীমনি ও তার সঙ্গীরা ওই ক্লাবে গিয়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটান।

পরে পরীমনি এ বিষয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সেদিন রাতে অল কমিউনিটি ক্লাবে যাওয়ার কথা স্বীকার করে নেন। তবে ভাঙচুরের ঘটনাকে অস্বীকার করে তিনি দাবি করেন, এই অভিযোগ বোট ক্লাবের ঘটনাকে আড়াল ও হালকা করার চক্রান্ত। মূল ঘটনা থেকে নজর সরাতে ‘উদ্দেশ্যমূলকভাবে’ তার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করা হচ্ছে।

পরীমনির এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে, নাসির উদ্দিন মাহমুদ গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবেরও সদস্য।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি কে এম আলমগীর ইকবাল বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমকে বলেন, নাসির উদ্দিন মাহমুদআমাদের ক্লাবেরও একজন সদস্য। একসময় তিনি আসা-যাওয়া করলেও অনেকদিন ধরেই আসেন না। তবে এখনও তার সদস্যপদ আছে।

নাসির গ্রেপ্তার হওয়ার পর তার পক্ষ নিয়ে পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলা হচ্ছে কি না, জানতে চাইলেও অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি বলেন, এরকম ভাবার কোনো কারণ নেই। আমরা কারো পক্ষে বা বিপক্ষে যেতে চাই না। ওইদিন রাতে ক্লাবে একটি ঘটনা ঘটেছিল বলেই বিষয়টি সামনে এনেছি। পরীমনি কিংবা নাসির উদ্দিন, কারো ব্যাপারেই আমাদের কিছু বলার নেই। আমরা ভাঙচুরের ঘটনায় পরীমনির বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেয়নি। আমাদের ক্লাবের যে সদস্যের অতিথি হয়ে তিনি এসেছিলেন, বিষয়টি তাকে জানিয়েছি। যে কয়েকটা গ্লাস-প্লেট ভেঙেছে সেগুলো তিনিই পরিশোধ করবেন।

পরীমনির এই ভাঙচুরে ঘটনা আটদিন পর কেন প্রকাশ করা হল? জবাবে কে এম আলমগীর ইকবাল বলেন, আমরা এ ঘটনা সম্পর্কে কোনো অভিযোগ করেণি। পরীমনি নিজেই ট্রিপল নাই কল করেছিলেন। ওই সূত্রেই বিষয়টি সামনে এসেছে।পরে বিষয়টি ব্যাখা করতেই সাংবাদিকদের সামনে কথা বলেছি।

পরীমনির বিরুদ্ধে ভাঙচুরের ঘটনায় ক্লাব কর্তৃপক্ষের কোনো ইচ্ছে বা পরিকল্পনা নেই বলেও জানান অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি।

গত ৭ জুন মধ্যরাতে অল কমিউনিটি ক্লাবে পরীমনি যাওয়ার পরের রাতেই উত্তরার পাশে বিরুলিয়ায় ঢাকা বোট ক্লাবে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনা ঘটে। তার চার দিন পর তিনি প্রথমে ফেইসবুকে অভিযোগ করেন, ওই ক্লাবে তিনি ‘ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার’ শিকার হয়েছিলেন।

পরীমনির মামলায় তুমুল আলোচনার মধ্যে ঢাকা বোট ক্লাবের সদস্য ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ গ্রেফতার হওয়ার দুদিন পর বুধবার অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি, ব্যবসায়ী কে এম আলমগীর ইকবাল অভিযোগ করেন, গত ৭ জুন মধ্যরাতে পরী মনি ও তার সঙ্গীরা ক্লাবে এসে ভাঙচুর করেন।

বাংলাদেশ জার্নাল- ওআই

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত