ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ১০ মিনিট আগে

৮০ ভাগ শুটিং শেষ, ‘মৃধা বনাম মৃধা’ সিনেমার মুক্তি নভেম্বরে

  বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৭ জুলাই ২০২১, ১৫:১৩  
আপডেট :
 ২৭ জুলাই ২০২১, ১৫:৪৪

৮০ ভাগ শুটিং শেষ, ‘মৃধা বনাম মৃধা’ সিনেমার মুক্তি নভেম্বরে
‘মৃধা বনাম মৃধা’ সিনেমার একটি দৃশ্যে সিয়াম আহমেদ ও নোভা ফিরোজ
বিনোদন প্রতিবেদক

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে শুরু হয়েছিলো সিয়াম আহমেদ ও নোভা ফিরোজ অভিনীত নতুন সিনেমা ‘মৃধা বনাম মৃধা’ সিনেমার শুটিং। এটি নির্মাণ করেছেন ২০০ এরও বেশি বিজ্ঞাপন নির্মাণ করা পরিচালক রনি ভৌমিক। এটাই তার নির্মাণে প্রথম সিনেমা। ছবিটির শুটিং মাঝামাঝি পর্যায়ে এলে বেশ ঘটা করে বিষয়টি সামনে আনেন নির্মাতা। তিনি চেয়েছিলেন ছবিটির কাজ শেষ করে সবাইকে জানাতে, যার জন্য একটু সময় নিয়েছেন।

এরমধ্যে গত ১৮ ও ১৯ জুলাই ঢাকার অদূরে চট্টগ্রামের বিভিন্ন লোকেশনে এর শুটিং করেছেন ছবিটির কলাকুশলীরা। এসময় শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন তারিক আনাম খান, সিয়াম আহমেদ, নোভা ফিরোজ, সানজিদা প্রীতি প্রমুখরা। দুই লটের শুটিং শেষে এ মাসের শেষের দিকে শেষ লটের শুটিং হওয়ার কথা রয়েছে। এমনটাই জানালেন নির্মাতা রনি।

তিনি বলেন, প্রথমত, আমরা চেয়েছিলাম ছবিটির কাজ শেষ করে তারপর সবাইকে জানাতে। কিন্তু মাঝামাঝি সময়ে এসে আমরা বিষয়টি সবাই জানাই। ফেব্রুয়ারিতেই আমাদের শুটিং অনেকখানি শেষ হয়েছিলো। এরপর ঈদের আগে দুইদিন চট্টগ্রাম শহরের ভিতরে বিভিন্ন লোকেশনে এর কিছু দৃশ্যায়ন শেষ করি। এরমধ্যে গানের কিছু দৃশায়নও ছিলো। আশা করছি সামনের লটে কাজ সম্পূর্ণ করে ফেলতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের প্রায় ৮০ ভাগ অংশের কাজ শেষ। আর অল্প কিছু অংশ বাকি রয়েছে। লকডাউনে শুটিং করতে সমস্যা না হলে ২৯ জুলাই থেকেই শেষ লটের শুটিং করার প্ল্যান আছে। এখন দেখা যাক কী হয়! এই লটে শেষ হয়ে গেলে আমার পরিকল্পনা এবছরই সিনেমাটি হলে মুক্তি দেবো। সেদিক থেকে চিন্তা রয়েছে নভেম্বর মাসে মুক্তি দেওয়ার। যেহেতু এখনো হল খুলেনি, এরমধ্যে খুলে যাবে; এমনতাই আশা করছি। আর যেহেতু এটাই আমার প্রথম পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচিচত্র তাই আমি এটা দর্শকদেরকে হলেই দেখাতে চাই। এরপর ওটিটিতে দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা রয়েছে।

সিয়াম আহমেদ বলেন, ‘মৃধা বনাম মৃধা’ হচ্ছে পারিবারিক গল্পের একটি সিনেমা। যে গল্পটা সবাই নিজেদের সঙ্গে মেলাতে পারবে। গল্পটা যত সাধারণ ঠিক ততটাই কমপ্লিকেটেড। পরিবারের বিভিন্ন মুহূর্ত, পরিস্থিতি; এরকম অনেককিছুই আছে যেখানে আমরা কষ্ট মেনে নিয়েও হেসে দিয়েছি। বাবা-ছেলের সম্পর্কের গল্প রয়েছে, পরিবারের সবার সাথে একটা সুন্দর মেলবন্ধন, ভুল বোঝাবুঝি সবকিছুই রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এক কথায় চমৎকার এক অভিজ্ঞতার সঙ্গে কাজ করেছি এখানে। বিশেষ করে আমাদের তারিক আনাম স্যার, যিনি আমাদের সবার শিক্ষক। উনার সঙ্গে আগে কিছু কাজ করা হলেও এতটা দীর্ঘ সময় নিয়ে কাজ করা হয়নি কখনো। যার কারণে এবার নতুন করে অনেক কিছু শেখার সুযোগ পেয়েছি। আর এখন হাতে ধরে শেখার বা শেখানোর সুযোগটাও কিন্তু নেই। কেউ এসে কিন্তু হাতে ধরে ওভাবে শেখায় না। কিন্তু তারিক স্যারের সঙ্গে কাজ করতে গেলে সেই সুযোগটা পাওয়া যায়। এছাড়া টিমের আরও যারা আছেন সবার সঙ্গেই খুবই সুন্দর একটা সময় পার করেছি, ইটস ওয়ান্ডারফুল।

অন্যদিকে নোভা ফিরোজ বলেন, সিনেমা যেহেতু একটা বড় প্ল্যাটফর্ম তার জন্য অবশ্যই একটা আলাদা প্রস্ততির বিষয় থাকে। আমি সে অনুযায়ী হোমওয়ার্ক করে তারপরই কাজে অংশ নিয়েছি। আর আমি একটা চরিত্র থেকে বের হয়ে অন্য চরিত্রে ঢুকতে যথেষ্ঠ সময় নিই। এই সিনেমাটির কথা যদি বলি, তাহলে বলবো এরকম একটা টিম এবং সহশিল্পীদের সঙ্গে কাজ করে সত্যি বেশ ভালো লেগেছে। একটা সুন্দর জার্নি ছিল আমাদের সবার।

তিনি আরও বলেন, এটা হচ্ছে সামাজিক এবং পারিবারিক গল্পের একটি সিনেমা যেখানে সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না, ভুল বুঝাবুঝি সবই রয়েছে। আমরা আমাদের চারপাশের পরিবারে যেমনটা দেখতে পাই, ঠিক তেমনই এক গল্প; যেখানে সবাই নিজেদেরকে মেলাতে পারবেন।

টোস্টার প্রোডাকশন প্রযোজিত এ সিনেমাতে সিয়ামের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন নোভা ফিরোজ। এছাড়াও আরও অভিনয় করেছেন সানজীদা প্রীতি, তারিক আনাম খান প্রমুখ।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত