ঢাকা, শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৩ আশ্বিন ১৪২৮ আপডেট : ৯ মিনিট আগে

দর্শকের মতে ‘স্টোর রুম’ যেন নাটক নয়, বলিউড সিনেমা!

  বিনোদন প্রতিবেদক

প্রকাশ : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৬:০১  
আপডেট :
 ২৯ জুলাই ২০২১, ১৭:৫৮

দর্শকের মতে ‘স্টোর রুম’ যেন নাটক নয়, বলিউড সিনেমা!
স্টোর রুম
বিনোদন প্রতিবেদক

ঈদ উপলক্ষে নির্মিত হওয়া বহু রোমান্টিক, কমেডি, থ্রিলার ও পারিবারিক গল্পের বাইরে এবার দর্শকদের মন ছুঁয়েছে হরর বা ভৌতিক নাটক ‘স্টোর রুম’। জিয়াউল ফারুক অপূর্বের গল্প ভাবনায় এটি পরিচালনা করেছেন রুবেল হাসান। এতে অভিনয় করেছেন সাবিলা নূর ও অপূর্ব নিজে।

নাটকটি প্রচার হওয়ার পর দর্শকমহলে বেশ সাড়া পাচ্ছে এটি। ইউটিউব এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দর্শকরা বেশ পজেটিভ মন্তব্য করছেন।

এক দর্শক লিখেন, বাংলাদেশে ভৌতিক গল্পের কাজ হয়না বললেই চলে। সেখানে ‘স্টোর রুম’ যেন পুরা বলিউড সিনেমার আমেজ দিলো। সত্যি দারুণ লেগেছে।

এ বিষয়ে নির্মাতা রুবেল হাসান বলেন, ঈদের আগে মাত্র দেড় দিনে এটার শুটিং শেষ করেছি। ভাইয়া অনেক খেটেছেন এখানে, নিজে ধরে ধরে কাজটা করেছেন। আর সাবিলা এক কথায় দুর্দান্ত করেছে। আর সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো শুটিংয়ের সময় আমরা ফুল ভলিউম দিয়ে হরর সাউন্ড ব্যবহার করে শুটিং করেছি, যার কারণে হরর দৃশ্যগুলোতে সাবিলা খুব বেশি ভয় পেয়ে গিয়েছিলো। ওর চোখেমুখে ভয় ছিলো। আর এক্সপ্রেশন তো ছিলো চমৎকার। দর্শকদের অনেকে কাজটি নিয়ে প্রশংসা করছেন, ভালো লাগছে। কাজটির ভিউ নিয়ে ভাবছি না, একটু ভিন্ন মাত্রার কাজ দর্শকদের উপহার দিতে চেয়েছি শুধু।

জিয়াউল ফারুক অপূর্ব বলেন, নাটকটির গল্প ভাবনা আমার। এবারের ঈদে রোমান্টিক, রোমান্টিক-কমেডি, স্যাড রোমান্টিক, পারিবারিক বোধের গল্পে কাজ করার পাশাপাশি ডিফারেন্ট একটা কাজ হচ্ছে ‘স্টোর রুম’। এখানে সাবিলা দুর্দান্ত অভিনয় করেছে। আর এটার মিউজিক করেছে লাবিক, তার সঙ্গে আমি শব্দ বিন্যাসটা করেছি নাটকের। ব্যাকগ্রাউন্ড সাউন্ডটা কোথা থেকে শুরু হয়ে কোথায় শেষ হবে, কোন জায়গায় কি হবে সেটার সাজেশন দিয়েছি নিজে সামনে থেকে।

তিনি আরো বলেন, দর্শকরা ভালো রেসপন্স করছে, আমি ইউটিউবের অনেক মন্তব্য দেখেছি। আর এটাকে বলিউডের সঙ্গে তুলনা করার মতো কিছু না আসলে। চেষ্টা করেছি একটু ডিফারেন্ট কিছু দিতে, এই আর কি!

সাবিলা নূর বলেন, আমি এমনিতেই একটু ভীতু বলা যায়, অল্পতেই আমি খুব ভয় পাই। সেখানে এ কাজটির স্ক্রিপ্ট পেয়ে আমি একটু বেশি নার্ভাস ছিলাম। কারণ, অদ্ভুত নামে আরেকটা কাজ করেছি, ওটা হরর কমেডি হলেও ‘স্টোর রুম’ টা একদমই হরর। শুটিংয়ে আমরা হরর ব্যাকগ্রাউন্ড সাউন্ড ব্যবহার করে শুটিং করেছি, যার কারণে শুটিং করতে গিয়েও আমি ভয় পেয়েছিলাম। একবার একটা দৃশ্য করতে গিয়েতো আমি কান্না-ই শুরু করে দিয়েছি, এত ভয় পেয়েছিলাম। পরে সবাই মিলে আমাকে শান্ত করেছে। আর কাজটা তো মাত্রই রিলিজ হলো, তারপরও ভালো সাড়া পাচ্ছি।

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন/ওয়াইএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত