ঢাকা, রোববার, ১৪ আগস্ট ২০২২, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯ আপডেট : ১৯ মিনিট আগে

স্টার সিনেপ্লেক্সে একদল তরুণের লুঙ্গি পরে প্রতিবাদ

  ইমরুল নূর

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০২২, ১৭:৫১  
আপডেট :
 ০৪ আগস্ট ২০২২, ২১:৪৩

স্টার সিনেপ্লেক্সে একদল তরুণের লুঙ্গি পরে প্রতিবাদ
ইমরুল নূর

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লুঙ্গি পরা এক বৃদ্ধের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ওই ব্যক্তি রাজধানীর মিরপুরে সনি-স্টার সিনেপ্লেক্সে ‘পরাণ’ ছবি দেখতে গিয়েছিলেন কিন্তু ব্যক্তি লুঙ্গি পরায় কাউন্টার থেকে তাকে সিনেমার টিকিট দেওয়া হয়নি। ৩৫ সেকেন্ডের সে ভিডিও মুহূর্তেই ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। এমন ঘটনায় ফেসবুকে ক্ষোভ ঝেড়েছেন অনেকেই! বিষয়টি শেয়ার করেন ‘পরাণ’ ছবির পরিচালক রায়হান রাফি, চিত্রনায়ক শরিফুল রাজ ও নায়িকা বিদ্যা সিনহা মিমসহ অনেকে।

এর প্রতিবাদে এবার রাজধানী মিরপুরের একদল তরুণ বৃহস্পতিবার দুপুরে লুঙ্গি পরে স্টার সিনেপ্লেক্সের সনি স্কয়ারে সিনেমা দেখতে যান। প্রথমে তাদেরকে টিকিট কাউন্টারে যেতে না দিলেও একসময় কতৃপক্ষ তাদেরকে টিকিট দিতে বাধ্য হন। টিকিট কেনার পর তারা দলবেঁধে ছবিও তুলেন এবং সেটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন।

সেখানে মাশনুন নামের একজন লিখেন, উই ভাইব! প্রোটেস্ট এগেইনস্ট কালচারাল ডিসক্রিমিনেশন।

তিনি আরও লিখেন, তারা প্রথমে লুঙ্গি দেখে স্টার সিনেপ্লেক্সে প্রবেশ করতে না দিলেও পরবর্তীতে সংখ্যা দেখে হার মানতে বাধ্য হয়। দেশের মাটিতে সংস্কৃতির অবমূল্যায়ন, মানবো না মানবো না!

তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে বাংলাদেশ জার্নালকে তিনি বলেন, ‘আমরা সবাই এবার উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছি। বৃদ্ধ লোকটির সঙ্গে ঘটা কাজটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখেছি এবং উনার সঙ্গে যেটা হয়েছে সেটা এক ধরণের অন্যায়ই বলা যায়। এরপর আমি আমার বন্ধুদের সাথে পরামর্শ করি যে, আমরা লুঙ্গি পরেই ছবি দেখতে যাবো। আমরা বাংলা সিনেমা দেখেই বড় হয়েছি, সিনেপ্লেক্সগুলোতে বাংলা সিনেমা চলবে এবং সেখানে সব ধরণের দর্শক সিনেমা দেখবে এটাই স্বাভাবিক।

বলা যায়, বৃদ্ধ লোকটির সঙ্গে যা হয়েছে তার প্রতিবাদ স্বরূপই আমরা লুঙ্গি পরে ছবি দেখতে যাই। সকাল ১১ টার শো দেখতে গিয়েছিলাম আমরা ১০জন বন্ধু। আমরা মূলত ‘হাওয়া’ সিনেমা দেখতে গিয়েছিলাম কিন্তু কোন টিকিট পাইনি। এরপর ‘পরাণ’ এর টিকিট ছিলো বিধায় আমরা এ ছবিটি দেখি।’

বৃদ্ধার সঙ্গে ঘটা ঘটনাটি দুর্ভাগ্যজনক ভুল বোঝাবুঝির ফল বলে দাবি করেছে স্টার সিনেপ্লেক্স। এ বিষয়ে প্রেক্ষাগৃহটির মিডিয়া ও বিপণন বিভাগের জ্যেষ্ঠ ব্যবস্থাপক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশ জার্নালকে বলেন, ‘যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটির জন্য আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি। আমাদের ১৮ বছরের ইতিহাসে এমনটা কখনও হয়নি। এখন আমার কথা হলো, আমাদের সিনেপ্লেক্সে এখন ‘হাওয়া’ কিংবা ‘পরাণ’ এর আগামী শনিবার পর্যন্ত কন টিকিট নেই। এমনও হতে পারে টিকিট পাননি বলে উনি ছবি দেখতে পারেননি। কেউ হয়তো বা এটাকে ইচ্ছে প্রণোদিতভাবে নেগেটিভভাবে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছে। কারণ, কোন দর্শকের সাথেই আমাদের এমন ব্যবহার করার নজির নেই। আমরা কোন বর্ণ বৈষম্য করি না। সিনেমাহলে যেকেউইই আসতে পারেন এবং যেভাবেই ইচ্ছে আসতে পারেন। অনেকে তো হাফপ্যান্ট কিংবা শর্টস পরেও সিনেমা দেখতে আসেন, কোথায় তখন আমরা তো বাঁধা দেই না। আমার মনে হয় পুরোটাই একটা ভুল বুঝাবুঝি। তারপরও আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি।’

আজকে দুপুরে একদল তরুণ লুঙ্গি পরে সনি স্কয়ারে সিনেমা দেখতে গিয়েছেন, সেখানেও তাদেরকে প্রথমে ভিতরে যেতে বাঁধা দেওয়া হচ্ছিলো; এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি জানতে পেরেছি ঘটনাটি তবে এখানে বাঁধা দেওয়ার মত কোন কিছু হয়নি। আর এখানে যেহেতু মার্কেট রয়েছে সেহেতু হয়তোবা দারোয়ান তাদের সঙ্গে এমনটা করতে পারে। কিন্তু সিনেমা দেখা নিয়ে আমাদের কোন বাঁধা নিষেধ নেই, যে যেভাবে ইচ্ছে আসতে পারেন।’

গত ঈদে মুক্তি পেয়েছে রায়হান রাফি পরিচালিত ‘পরাণ’ সিনেমা যেখানে অভিনয় করেছেন শরিফুল রাজ ও বিদ্যা সিনহা মিম অন্যদিকে মুক্তি পেয়েছে মেজবাউর রহমান সুমন পরিচালিত ‘হাওয়া’, এখানে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, নাজিফা তুষি, শরিফুল রাজ, সোহেল মন্ডল, সুমন আনোয়ার প্রমুখ। দুটি ছবিই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল ঝড় তুলেছে, হলমুখী করেছে দর্শকদের। টিকিট নিয়ে এখনও চলছে হাহাকার!

বাংলাদেশ জার্নাল/আইএন

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত