ঢাকা, রোববার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০ আপডেট : ২৯ মিনিট আগে
শিরোনাম

রাজ ১০ দিন ধরে সুনেরাহর সাথেই থাকে

  বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশ : ৩০ মে ২০২৩, ১৯:২১

রাজ ১০ দিন ধরে সুনেরাহর সাথেই থাকে
চিত্রনায়িকা পরীমণি: ছবি: সংগৃহীত

চিত্রনায়ক শরিফুল ইসলাম রাজের মোবাইল ফোন থেকে ফেসবুকে যে ছবি ও ভিডিওগুলো পোস্ট করা হয়েছে, সেগুলো অভিনেত্রী সুনেরাহ বিনতে কামালই করেছেন বলে দাবি করেছেন রাজের স্ত্রী ও নায়িকা পরীমণি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ নিয়ে ব্যাপক আলোচনার মধ্যেই মঙ্গলবার গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে এই দাবি করেন তিনি।

পরীমণি বলেছেন, ‘আমার জামাই রাজ তো ১০ দিন ধরে আমার সাথে থাকে না। থাকে ওই মেয়ের সাথে। রাজই তো আমার কাছে নাই, ওর ফোন আমার কাছে আসবে কই থেকে।’

সুনেরাহ বলেছেন, ছবি ও ভিডিওগুলো পরীমনিই ছড়িয়েছেন। তবে পরীমণি বলছেন, সংসার ভাঙার জন্য সুনেরাহ এ কাজ করেছেন।

পরীমণি বলেন, ‘এই মেয়ে কী চায়, বেয়াদপ। এগুলো কেন করতে যাব, এত লেম জিনিসপত্র। ওর নাকি এত বেস্ট ফেন্ড, তাইলে বিযের পর কেন যোগাযোগ রাখে নাই?’

সুনেরাহকে নিয়ে নায়িকা বলেন, ‘হঠাৎ করে এখন আবার আমার জামাইকে কেড়ে নিছে কেন। এখন আমার তাই মনে হচ্ছে, সব নাটের গুরু এই মেয়ে। না হলে ভোররাতে স্ট্যাটাস দিয়ে দিল আর ১০-১৫ মিনিটের মাথায় ডিলিট হয়ে গেল।’

‘এগুলো কোনো প্ল্যান না মনে করছেন। এই মেয়ে জড়িত পুরোপুরি। একটা চক্র কাজ করতেছে আমার সংসার ভাঙার জন্য। আমি কি আইডি চালাই?’

পরীমণি বলেন, ‘একদম খালি খালি কেউ যদি আমার দিকে আঙুল তোলে আমি কিন্তু মামলা দিব। কেউ যেন প্রমাণ না নিযে আমার সাথে কথা বলে। সুনেরাহ মেয়েটা আমার নামে বলছে, ওর কোনো রাইটই নাই এসব বলার।

‘রাজ তো কদিন ধরে ওর কাছে। রাজের ফোন ওর কাছে। রাজ কি আমার সাথে থাকে যে, আমি ফোন থেকে দেব ছবিগুলো।’

রাজ-পরী দম্পতির সাংসারিক দাম্পত্য ফেসবুকে আসা নতুন কিছু নয়। তবে সুনেরাহকে জড়িয়ে এবারের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে এসেছে সোমবার রাতে। ওই রাতে অভিনেত্রী সুনেরাহ, নাফিজা তুষি ও তানজিন তিশার সঙ্গে রাজের কিছু ছবি এবং ভিডিও রাজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে আপলোড করা হয়।

এসব পোস্টে অসংলগ্ন ভাষায় কথা বলতে দেখা যায় সুনেরাহ ও তানজিন তিশাকে। কয়েকটি ছবিতে দেখা গেছে রাজ ও সুনেরাহকে ভিডিও কলে কথা বলতে। একটি ভিডিওতে লিফটের ভেতরে নাচছিলেন তানজিন তিশা। পরে অবশ্য রাজের অ্যাকাউন্টে সেসব ভিডিও বা ছবি আর পাওয়া যায়নি।

ছবি ও ভিডিও ফাঁস হওয়ার দায় রাজের স্ত্রী নায়িকা পরীমণিকে দিয়ে মঙ্গলবার রাতে একটি পোস্ট দেন সুনেরাহ। একই সঙ্গে তিনি দেন আইনি ব্যবস্থারও হুমকি।

সুনেরাহ পোস্টে লেখেন, ’১০ বছরের বেশি সময় ধরে আমি রাজকে চিনি। সে আমার বেস্ট ফ্রেন্ড ছিল। আমরা তো সবাই জানি কীভাবে আমরা বেস্ট ফ্রেন্ডের সঙ্গে কথা বলি। সে ছেলে আর আমি মেয়ে, এটাই কি তোমরা একমাত্র সমস্যা ভাবছো?’

তিনি লিখেছেন, ‘বিয়ের পর রাজের সঙ্গে আমার যোগাযোগ প্রায় নেই বললেই চলে। সেদিন একটা ডাবিং স্টুডিওতে আমার দেখা হওয়ার পর আমরা ছবি তুলেছি। পুরনো কোনো বন্ধুর সঙ্গে ছবি তোলাতে ভুল কী তা আমি জানি না। কারণ ছাড়াই তার স্ত্রী আমাকে নিয়ে পাগলামি করছে।’

অভিনেত্রী লিখেছেন, ’আপনারা যে ভিডিওগুলো দেখেছেন সেগুলো পাঁচ বছর আগের। ন ডরাই সিনেমার সময়ের। সেই সময় আমরা এভাবেই মজা করতাম, আর প্রতিদিন এভাবে কথা বলার প্র্যাকটিস করতাম। কারণ, আমাদের (বিশেষ করে আমাকে) সিনেমার প্রয়োজনে গালি দিতে হয়েছে এভাবে।’

পরীমণিকে ইঙ্গিত করে সুনেরাহ লেখেন, ‘দয়া করে এ বিষয় নিয়ে বাড়াবাড়ি করবেন না। আমি নিশ্চিত, ওর (রাজ) আইডি হ্যাকড হয়েছে। কে হ্যাক করেছে, আমরা সেটা জানি; প্রকাশ্যে হইচই করতে যার কোনো কারণ লাগে না। এ ভিডিওগুলো যারা ছড়াবে, তাদের সবার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেব।’

এর আগেও রাজ-পরীর পারিবারিক দ্বন্দ্বের ব্যাপার সামনে এসেছিল গত পহেলা জানুয়ারি। ইংরেজি নতুন বছরের প্রথম প্রহরে ভোর ৫টার দিকে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে রাজের সঙ্গে আর সংসার করবেন না বলে ঘোষণা দেন পরীমণি। একই ঘোষণা দিয়েছিলেন রাজও।

এর দু-একদিন আগে থেকে চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিমকে রাজের সঙ্গে জড়িয়ে নানা পোস্ট দিচ্ছিলেন পরীমণি। তবে শেষ পর্যন্ত টিকে যায় এ দম্পতির সংসার।

২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর বিয়ে করেন শরিফুল রাজ ও পরীমণি। দীর্ঘদিন গোপনেই ছিল তাদের বিয়ের খবর। চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তাদের বিয়ের খবর প্রকাশ্যে আসে।

পরীমলির অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরটিই প্রথমে জানা যায়, পরে জানা যায় তাদের বিয়ের খবর। রাজ-পরীর একমাত্র সন্তান শাহীম মুহাম্মদ রাজ্য। এ বছরের ১০ আগস্ট জন্ম হয় রাজ্যের।

আরও পড়ুন: রাজের সঙ্গে তিশা-সুনেরাহর গোপন ভিডিও ফাঁস

বাংলাদেশ জার্নাল/কেএ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত