ঢাকা, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ আপডেট : ৬ মিনিট আগে
শিরোনাম

আসছে সামিনা চৌধুরীর 'মেঘবরষা'

  বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০২৪, ১৩:২৭

আসছে সামিনা চৌধুরীর 'মেঘবরষা'
ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের নন্দিত কণ্ঠশিল্পী সামিনা চৌধুরী বাংলা গানের ইতিহাসে অনন্য উচ্চতায় আসীন। এবার বৃষ্টি নিয়ে ডা. রুখসানা পারভীন সুরমার কথায়, মুরাদ নূরের সুরে 'মেঘবরষা' শিরোনামের গান গাইলেন গুণী এই শিল্পী। অনিক কান্তি সরকারের পরিচালনায়, আশিক মাসুদের চিত্রগ্রহণে, ফকরুল ইসলামের সম্পাদনায় ১১ জুলাই, সন্ধ্যা সাতটায় গানচিত্রটি নূর ক্রিয়েশনস এর ইউটিউব চ্যানেল সহ সকল ডিজিটাল মাধ্যমে প্রকাশিত হবে।

'মেঘবরষা' গানের প্রসঙ্গে সামিনা চৌধুরী বলেন, মেঘবরষা গানটি অনেক আগেই মুরাদ নূর পাঠিয়েছিলো, দেশের বাইরে থাকার কারনে গাইতে পারিনি। সঙ্গীত ক্যারিয়ারের অল্প সময়েই নূর বেশ পরিণত কাজ করছে। সুরকে ধারণ করতে পারছে নূর। গানটি ভীষণ মনে ধরাতে, কবে গাইবো সে অপেক্ষায় আমিও মুখিয়ে ছিলাম, গাইতে পেরে বেশ আনন্দ লাগছে। চমৎকার কথা সুরের সমন্বয়ে 'মেঘবরষা' গানে মেধাবী কবি কিছু নতুন শব্দ সৃষ্টি করেছে, যা আমাকে মুগ্ধ করেছে। বিশ্বাস করি, আমার ক্যারিয়ারেও বেঁচে থাকার উল্লেখযোগ্য গান হচ্ছে 'মেঘবরষা'।

সুরকার মুরাদ নূর বলেন, সামিনা আপা আমার ভীষণ পছন্দের শিল্পী। মানুষ হিসেবে আপার শতভাগ শৈল্পিক আচরণ আমাকে মুগ্ধ করে। গানটির ডেমো শোনার পরেই আপা তিনবার বাহ্ বলেছে। যা আমার সৃষ্টিতে স্বস্তি ও সাহস জুগিয়েছে। গীতিকবি রুখসানা পারভীন আপার বেশ কিছু গান সুর করেছি। মেঘবরষা তারমধ্যে অন্যতম। মেঘবরষা আমাদের বাঁচিয়ে রাখার গান হবে। সংশ্লিষ্ট আমরা উচ্ছ্বসিত।

গীতিকবি রুখসানা পারভীন সুরমা বলেন, চিকিৎসা পেশায় প্রচুর ব্যস্ত থাকতে হয়। গান-কবিতা লেখার সময় বের করা কষ্টকর। তবুও নেশা থেকেই কলম ধরি। ছোট ভাই মুরাদ নূর অসাধারণ সুর করেছে। কম বয়সে পরিণত সুরজ্ঞান। মুশফিক লিটুর অসাধারণ সঙ্গীতায়োজনে আমরা মুগ্ধ। আমি নিজেই সামিনা আপার বেশ ভক্ত। তাঁর কণ্ঠেই 'মেঘবরষা' পূর্ণতা পেলো। আশা করছি সবার ভালো লাগবে।

পরিচালক অনিক কান্তি সরকার বলেন, সামিনা চৌধুরীর মতো একজন গুণী শিল্পীর সাথে কাজ করাটা যেমন সৌভাগ্যের তেমনি শিক্ষনীয়ও বটে। অডিও এবং ভিজ্যুয়াল টিমের সবাই অনেক পরিশ্রম করছে, আমি তাদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

গানচিত্রটির সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন, নূর ক্রিয়েশনস এর উপদেষ্টা, বরেণ্য নির্মাতা বদিউল আলম খোকন।

বাংলাদেশ জার্নাল/আরএইচ

  • সর্বশেষ
  • পঠিত