ঢাকা, সোমবার, ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬ অাপডেট : ১৭ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৪৭

প্রিন্ট

‘কৌরবরা ছিলেন টেস্ট টিউব বেবি’

‘কৌরবরা ছিলেন টেস্ট টিউব বেবি’
জার্নাল ডেস্ক

কৌরবরা ছিলেন টেস্ট টিউব বেবি। এ দাবি করেছেন অন্ধ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য জি নাগেশ্বর রাও। তার মতে, ‘মহাভারত’-এর কালে ভারতবর্ষে স্টেম সেল রিসার্চও অজ্ঞাত ছিল না আর টেস্ট টিউব বেবির জন্ম তো ছিল একেবারেই ডালভাত।

ভারতীয় বিজ্ঞান কংগ্রেসের ১০৬ তম অধিবেশনে একের পরে এক যে সব অদ্ভুত দাবি উঠে আসছে, তা থেকে মনে হতেই পারে, এ দেশের বিজ্ঞানীরা পরীক্ষাগারে ‘রামায়ণ’ বা ‘মহাভারত’ হাতে নিয়ে বসে রয়েছেন।

কয়েকদিন আগেই সংবাদ শিরোনামে উঠে এসেছিল এ বারের বিজ্ঞান কংগ্রেস। পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্বের অধ্যাপক আশু খোসলা তাঁর এক গবেষণাপত্রে দাবি করেছিলেন, ভগবান ব্রহ্মা নাকি ডাইনোসর আবিষ্কার করেছিলেন। এই আজগুবি বক্তব্য নিয়ে যখন মিডিয়া সরগরম, তখন আর এক অধ্যাপক জানালেন, কৌরবরা ছিলেন টেস্ট টিউব বেবি।

এক মায়ের দেহ থেকে ১০১ কৌরবের জন্ম স্টেম সেল রিসার্চের ফলেই সম্ভব বলে জানান নাগেশ্বর রাও। তাঁর মতে, আজ থেকে হাজার বছর আগে ভারত বিজ্ঞানে এমনই উন্নত ছিল। তিনি জানান, মনে রাখা প্রয়োজন ১০০টি ডিম্বাণুকে একটি মাটির পাত্রে রাখা হয়েছিল। এটা নিঃসন্দেহে টেস্ট টিউব প্রযুক্তি।

এই দাবির পাশাপাশি রাও আরও জানান, ‘রামায়ণ’ ও ‘মহাভারত’-এর কালে যুদ্ধে গাইডেড মিসাইল ব্যবহৃত হতো। সুদর্শন চক্র এমনই এক গাইডেড মিসাইল, যা লক্ষ্য ভেদ করে আবার তার প্রেরকের কাছে ফিরে আসত। তিনি বলেন, লঙ্কেশ্বর রাবণের ২৪ রকমের বিমান ছিল। লঙ্কায় বেশ কয়েকটি বিমান বন্দরও ছিল বলে তিনি দাবি করেন। সূত্র: এবেলা

আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
    Error!: SQLSTATE[HY000]: General error: 2006 MySQL server has gone away
close
close