ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭ আপডেট : ১ মিনিট আগে English

প্রকাশ : ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৬:২৩

প্রিন্ট

বিশ্বের সবচেয়ে দামী ও আরামদায়ক যে কাপড়

বিশ্বের সবচেয়ে দামী ও আরামদায়ক যে কাপড়
ফিচার ডেস্ক

ভিকুনা নামের এক প্রজাতির প্রাণীর পশম থেকে উৎপাদিত হয় বিশ্বের সবচেয়ে দামী, উষ্ণ ও আরামদায়ক কাপড়। এ পোষাক কাশ্মীরি শালের থেকেও বহুগুণে দামী ও আরামদায়ক। দুর্লভ এ প্রাণীটির সন্ধান মেলে দক্ষিণ আমেরিকার স্বল্প কয়েকটি দেশে। চিলির অ্যান্ডিস আলটিপ্লানো পর্বতে এ প্রাণীটির বিচরণ দেখা যায়।

ক্যামেলিড পরিবারের প্রাণীদের মধ্যে ভিকুনা সবচেয়ে ছোট ও মায়াবী গঠনের হয়ে থাকে। এদের দেহের উপরিভাগ কমলা এবং নিচের অংশ সাদা রঙের পশম দ্বারা আবৃত থাকে। এই উষ্ণ পশমই মূলত তাদের পর্বতের ঠাণ্ডা আবহাওয়া থেকে রক্ষা করে।

চিলির পাশাপাশি আর্জেন্টিনা, বলিভিয়া ও পেরুতেও ভিকুরের সন্ধান মেলে। সাধারণত সমুদ্রপৃষ্ঠ হতে ১০,০০০-১৫,০০০ ফুট উঁচু পর্বতভূমিতে প্রাণীটি বসবাস করে।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের ভাষ্যমতে, বিশ্বের সবচেয়ে দামী কাপড় ভিকুনার পশম থেকে তৈরি হয়। এ প্রাণীর পশম থেকে তৈরি একেকটি কোটের মূল্য ২১ হাজার ডলারে চেয়েও বেশি। যা বাংলাদেশি টাকায় প্রায় পৌনে দুই কোটি টাকার সমান। এছাড়া ভিকুনার পশম দিয়ে তৈরি একেকটি মাফলারের দাম গড়ে ৪,০০০ ডলার; অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৩ লাখ ৪০ হাজার টাকা।

ভিকুনার পশম দিয়ে তৈরিকৃত পোশাকের ফিনিশিং এতটাই মসৃণ হয় যে, এর চেয়ে অভিজাত পোশাক আর কোনো উল দ্বারা তৈরি করা সম্ভব হয় না। ঐতিহাসিকভাবেই ভিকুনার কাপড় অভিজাত পণ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে।

বাংলাদেশ জার্নাল/এইচকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত