ঢাকা, শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮ আপডেট : ৯ মিনিট আগে

প্রকাশ : ০৭ মার্চ ২০২১, ২২:২৩

প্রিন্ট

আক্রমণাত্মক প্রচার চলবে না: কেন্দ্রীয় ব্যাংক

আক্রমণাত্মক প্রচার চলবে না: কেন্দ্রীয় ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক

মৌখিক ভাবে সতর্ক করেও কাজ না হওয়ায় এবার প্রজ্ঞাপন জারি করে বিকাশ ও নগদকে পারস্পরিক বিরোধ মেটাতে কড়া বার্তা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এক মোবাইল সেবা প্রতিষ্ঠানকে ইঙ্গিত করে আরেকটি প্রতিষ্ঠান নিজেই প্রচারণা চালাচ্ছে। তাদের সেবা নিয়েও বিদ্রূপপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক প্রচারণা চালাচ্ছে। আবার আরেকটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে পোস্টার সাঁটিয়েছে অজ্ঞাতরা। বিষয়টি কেন্দ্রীয় ব্যাংকেরও নজরে এসেছে। এসব বন্ধে বিকাশ ও নগদের সঙ্গে আলাদা আলাদা বৈঠকও করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। তবে বন্ধ হয়নি বিদ্রূপপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক প্রচারণা।

এর পরিপ্রেক্ষিতে আজ প্রজ্ঞাপন জারি করে এমন প্রচারণা বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। সব ধরনের প্রচারণায় বিদ্রূপপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক শব্দ পরিহার করতে বলেছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি বিভিন্ন সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত বাণিজ্যিক প্রচারণা ও জনসংযোগমূলক বিজ্ঞাপনে এক সেবাদাতা কর্তৃক অন্য সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানকে হেয়প্রতিপন্ন করা বা অন্য সেবা সম্পর্কে বিদ্রূপপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক শব্দ ব্যবহারের বিষয়টি নজরে এসেছে, যা অনভিপ্রেত ও অনাকাঙ্ক্ষিত।

এ বিবেচনায় ছাপা কাগজ, ইলেকট্রনিক ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত বাণিজ্যিক প্রচারণা, জনসংযোগমূলক বিজ্ঞাপন বা অনুরূপ প্রচারণাসহ অন্যান্য কার্যক্রমে বিদ্রূপপূর্ণ ও আক্রমণাত্মক শব্দের ব্যবহার পরিহারের নির্দেশনা দেওয়া হলো। নেতিবাচক সব ধরনের প্রচারণা থেকে বিরত থাকার পাশাপাশি প্রচারণামূলক সব কার্যক্রমে জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা-২০১৪ অনুযায়ী পরিচালনা করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এসব নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে সব মোবাইলে আর্থিক সেবা (এমএফএস) প্রতিষ্ঠান, পেমেন্ট সার্ভিস প্রোভাইডার ও পেমেন্ট সার্ভিস অপারেটরকে। বাংলাদেশ ব্যাংকের কয়েকজন কর্মকর্তা জানান, নগদের একটি বিজ্ঞাপন প্রচার, বিকাশ ও এর প্রধান নির্বাহীকে জড়িয়ে বিভিন্ন ভিডিও চিত্র তৈরি, নগদের সেবার বিরুদ্ধে সারা দেশে পোস্টার ছড়ানো, এ জন্য অজ্ঞাত ১০ হাজার জনের বিরুদ্ধে মামলাকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এই নির্দেশনা দিয়েছে। আর্থিক খাতে এমন আচরণ বরদাশত করা হবে না বলেও নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি জানায়।

নগদ ডাক বিভাগের সেবা হলেও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অনুমোদনের চেষ্টা করছে। এ জন্য প্রতিষ্ঠানটিকে অন্তর্বর্তীকালীন অনুমোদনও দিয়েছে। পাশাপাশি নগদের জমা টাকার লেনদেনে ডাক বিভাগের পুরো নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে বলেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। আর বিকাশ বাংলাদেশের মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা।

বাংলাদেশ জার্নাল/এসএমআর

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত