ঢাকা, সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯ আপডেট : ১ মিনিট আগে

মামলার ব্যাখ্যা দিতে একমাস সময় পেল চার ভোজ্যতেল কোম্পানি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ : ১৮ মে ২০২২, ২০:০১

মামলার ব্যাখ্যা দিতে একমাস সময় পেল চার ভোজ্যতেল কোম্পানি
নিজস্ব প্রতিবেদক

গত সপ্তাহে আট ভোজ্যতেল আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে স্বপ্রণোদিত হয়ে মামলা করে প্রতিযোগিতা কমিশন। সেবা নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ভোক্তা হয়রানি ও অসম প্রতিযোগিতার অভিযোগে এ মামলা করা হয়। তাদের মধ্যে চার কোম্পানিকে বুধবার শুনানিতে ডাকা হয়।

নিজেদের বক্তব্য জানাতে দুই প্রতিষ্ঠান আগামী ২২ জুন এবং বাকি দুই প্রতিষ্ঠান ২৭ জুন বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশনের কার্যালয়ে হাজির হবে।

কমিশনের প্রথমিক অনুসন্ধানে কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা আইনের ১৫ ধারা লঙ্ঘনের প্রমাণ পাওয়া যায়। এ জন্য ভোক্তাস্বার্থে প্রতিযোগিতামূলক বাজার নিশ্চিত করতে কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে মামলা করেছে কমিশন। প্রতিষ্ঠানগুলোকে মামলার শুনানিতে অংশ নিতে নোটিশও পাঠানো হয়।

নোটিশ পেয়ে বুধবার চার প্রতিষ্ঠান প্রতিযোগিতা কমিশনের শুনানিতে অংশ নেয়। শুনানিতে বসুন্ধরা অয়েল রিফাইনারি মিল (বসুন্ধরা) ও মেঘনা ও ইউনাইটেড এডিবল অয়েল রিফাইনারি লিমিটেড (ফ্রেশ) ২২ জুন পর্যন্ত সময় চেয়েছে। এ ছাড়া ২৭ জুন পর্যন্ত সময় চেয়েছে সিটি এডিবল অয়েল লিমিটেড (তীর) ও বাংলাদেশ এডিবল অয়েল লিমিটেড (রূপচাঁদা)।

কমিশনের পক্ষে কোম্পানিগুলোর বক্তব্য শোনেন কমিশনের চেয়ারপার্সন মফিজুল ইসলামসহ অন্যান্য সদস্যরা। পৃথকভাবে চার কোম্পানির সঙ্গে শুনানিতে বসে কমিশন।

এ সময় কোম্পানির প্রতিনিধিরা সময় চাইলে কমিশন তা মন্জুর করেছে।

বৃহস্পতিবার আরও চার কোম্পানির শুনানিতে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। এ চারটি প্রতিষ্ঠান হচ্ছে শবনম ভেজিটেবল অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (পুষ্টি), এস আলম সুপার এডিবল অয়েল কোম্পানি লিমিটেড (এস আলম), প্রাইম এডিবল অয়েল লিমিটেড (প্রাইম) ও গ্লোব এডিবল অয়েল লিমিটেড (রয়্যাল শেফ)।

বাংলাদেশ জার্নাল/আ,র/আরকে

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • আলোচিত