ঢাকা, বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬ অাপডেট : ৫ ঘন্টা আগে English

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৯, ১২:৫২

প্রিন্ট

রক্তস্বল্পতার কারণে হয় যে অসুখ

রক্তস্বল্পতার কারণে হয় যে অসুখ
জার্নাল ডেস্ক

চেহারা ক্রমেই ফ্যাকাশে হয়ে যাওয়া,খাওয়া-দাওয়ার ইচ্ছা না থাকা, অফিস যাতায়াতে ক্লান্ত হওয়া প্রবল গরমে এগুলোকে শুধুই সামার এফেক্ট বলে অবহেলা করলে ভুল করবেন। বরং এই লক্ষণগুলো দেখছেন মানেই আপনার রক্তস্বল্পতা রয়েছে। একে অ্যানিমিয়াও বলা হয়। এই অসুখকে বাড়তে দেয়া মানে শরীরে আরো অসুখ ঢেকে আনা।

রক্তাল্পতার লক্ষণ

ক্লান্তি বা দুর্বলতা হলো রক্তাল্পতার সাধারণ লক্ষণ।

শ্বাসপ্রশ্বাসের স্বল্পতা, মাথা ঘোরা, মাথা ব্যথা, হাত পা ঠাণ্ডা হয়ে যাওয়া। ফ্যাকাসে চামড়া, বুকে ব্যথাও রক্তস্বল্পতার উপসর্গ।

রক্তস্বল্পতায় আক্রান্ত ব্যক্তির অনেক সময় চুল ঝরতে পারে। মূলত আয়রনের অভাবে এমনটা হয়।

রক্তস্বল্পতার ফলে অনেক সময় অবসাদ তৈরি হয়।

অনেকের হৃদস্পন্দনের গতি বেড়ে যায় এই অসুখে।

কেন হয়

রক্তে রক্তকণিকার উপাদান কমে গেলে বা রক্তের লোহিতকণিকা নষ্ট হয়ে হলে রক্তস্বল্পতা হয়। এছাড়া দীর্ঘ দিন ধরে অতিরিক্ত ঋতুস্রাব, অর্শ্ব ইত্যাদি সমস্যা থাকলেও রক্তাল্পতা দেখা যায়। ম্যালেরিয়া, যক্ষা, যকৃত বা কিডনির সমস্যাও এই রোগ ডেকে আনে। আবার ভিটামিন বি১২ এর ঘাটতি থেকেও এই রোগ হতে পারে। ছোটদের ক্ষেত্রে কৃমি এর বড় কারণ।

ঘরোয়া উপায়

বেশির ভাগ ক্ষেত্রে খাদ্যাভাসের কারণেই শরীরে আয়রন ঘাটতি হয়। প্রাপ্তবয়স্ক একজন পুরুষের দৈনিক ৮ মিলিগ্রাম আয়রন প্রয়োজন। আর নারীদের প্রয়োজন দৈনিক ১৮ মিলিগ্রাম। গর্ভবতী নারীদের দৈনিক ২৭ মিলিগ্রাম আয়রন প্রয়োজন। শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে অ্যানিমিয়া ছাড়াও নানা অসুখ হতে পারে।

চিকিৎসকরা বলেন, ঘরোয়া কয়েকটি খাবার প্রতিদিন খেয়েলে অ্যানিমিয়া বা রক্তাল্পতা দূরে থাকতে পারে। মুসুর ডাল, পালং শাক, আলু, কাজুবাদাম এর মধ্যে প্রধান। এছাড়াও কিশমিশ, টমেটো, মটরশুঁটি, শিমের বীজ ইত্যাদি অত্যন্ত আয়রন সমৃদ্ধ খাবার। এই খাবারগুলো প্রতিদিন ডায়েটে থাকলে রক্তস্বল্পতাকে দূরে রাখা যায় অনেকটাই।

আরএ/

  • সর্বশেষ
  • পঠিত
  • অালোচিত
close
close